৬ বছরে ম্যাচ না খেলেই লালকার্ড দেখলেন দু’বার! ৬ বছরে ম্যাচ না খেলেই লালকার্ড দেখলেন দু’বার! – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: ছয় ছয়টি বছর ধরে তিনি ছিলেন ইন্টার মিলানে। একটি ম্যাচও খেলার সুযোগ হয়নি তাঁর। সাইডবেঞ্চে বসে অপেক্ষাতেই কেটে গেছে সময়। কিন্তু কোনো ম্যাচ না খেললেও এই সময়ে তিনি দেখেছেন দুটি লালকার্ড!

 

বলা হচ্ছে থমাস বার্নির কথা। ইতালির এই গোলরক্ষক ২০১৪ সালে যোগ দেন ইন্টার মিলানে। বছরে ২ লাখ ইউরোর বিনিময়ে ওই সময় তাঁকে দলে নেয় ইন্টার মিলান। এরপর প্রতি মৌসুমে চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েই গেছেন, পারিশ্রমিকের অঙ্কটাও বেড়েছে।

 

কিন্তু চুক্তি বাড়লেও থমাস বার্নিকে মাঠে নামানোর ক্ষেত্রে একেবারেই নেতিবাচক ছিল ইন্টার মিলান। ২০১৯-২০ মৌসুম অবধি তিনি তাই গোলপোস্ট আগলে রাখার দায়িত্ব পান নি।

 

৩৭ বছর বয়সী বার্নি এবার আর নতুন মৌসুমের জন্য চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে রাজি হননি। ইন্টার মিলানকে বিদায় বলে দিয়েছেন মঙ্গলবার।

 

কোনো ম্যাচ না খেলেও ইন্টার মিলানের জন্য কিংবদন্তি হয়ে ওঠেছিলেন থমাস বার্নি। দলের সবার সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক, তরুণদের যথাযথভাবে গাইড প্রদান, সবাইকে উজ্জীবিত রাখার ক্ষেত্রে তিনি ছিলেন অগ্রণী।

 

আর তাই থমাস বার্নি বিদায় বলে দেওয়ার পর ইন্টার মিলানের ভক্ত-সমর্থকরা বিষাদে আচ্ছন্ন।

 

গেল ছয় বছরে কোনো ম্যাচ খেলার সুযোগ হয়নি বার্নির। কিন্তু এই সময়ে তিনি দেখেছেন দুটি লালকার্ড।

 

চলতি বছরের জানুয়ারিতে সিরি আ’ লিগে কাগিলিয়ারির বিপক্ষে ম্যাচ ছিল ইন্টার মিলানের। ওই ম্যাচ ড্র হয় ১-১ গোলে। ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ের চতুর্থ মিনিটে লাউতারো মার্টিনেজ গোল করে মিলানকে সমতায় ফিরিয়েছিলেন।

 

গোলের পর মার্টিনেজের উচ্ছ্বাস ছিল বাঁধভাঙ্গা। আর তাই রেফারি তাঁকে হলুদ কার্ড দেখান। এটা পছন্দ হয়নি মার্টিনেজের। তিনি প্রতিবাদ জানালে রেফারি তাঁকে লালকার্ড দেখিয়ে দেন!

 

ওই সময় সাইডবেঞ্চে থাকা থমাস বার্নি রেফারির সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে ব্যাঙ্গাত্মকভাবে হাততালি দেন। এতে রেফারি তাঁকেও লালকার্ড দেখান।

চলতি বছরের জুনে আরেকটি লালকার্ড জুটে বার্নির কপালে। পার্মার বিপক্ষে ম্যাচ চলছিল। ম্যাচে ২-১ গোলে জয় পায় ইন্টার মিলান।

 

ওই ম্যাচের ৬৮ মিনিটে সাইডবেঞ্চে বসে অসঙ্গত আচরণ করেন থমাস বার্নি। রেফারি তাঁকে লালকার্ড দেখিয়ে দেন|।

শেয়ার করুন :