২৫ বছরে পা দিলো সিলেটের ‘প্লে মেট ক্রিকেট একাডেমি’ ২৫ বছরে পা দিলো সিলেটের ‘প্লে মেট ক্রিকেট একাডেমি’ – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: হাঁটি হাঁটি পা পা করে পঁচিশ বছরে পা দিয়েছে ‘প্লে মেট ক্রিকেট একাডেমি, সিলেট’। এ উপলক্ষে একাডেমিতে খেলা প্রাক্তন ও বর্তমান খেলোয়াড়দের মধ্যে অনুষ্ঠিত হচ্ছে একটি ক্রিকেট টুর্নামেন্টে। যেখানে অংশ নিচ্ছে পাঁচটি দল, খেলছেন প্রায় ৭০ জন ক্রিকেটার।

 

ঐতিহ্যবাহী এমসি কলেজ মাঠে আজ বিকেল ৩টায় উদ্বোধনী ম্যাচের মাধ্যমে শুরু হচ্ছে এই টুর্নামেন্ট।

 

আধ্যাত্মিক নগরী সিলেটে ‘ক্রিকেটের সূতিকাগার’ বলা যায় প্লে মেট একাডেমিকে। এখানে খেলেই প্রস্ফূটিত হয়েছেন জাতীয় দলে খেলা এনামুল হক জুনিয়র থেকে হালের ক্রেজ পেসার এনাম আহমদের মতো ক্রিকেটার। সিলেট প্রথম বিভাগ লিগ থেকে শুরু করে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে অংশ নিয়েছেন এই একাডেমিতে প্রশিক্ষণ নেওয়া খেলোয়াড়রা। তৃণমূল পর্যায়ে নতুন কুড়িদের ক্রিকেট বলে প্রশিক্ষণ দিয়ে গড়ে তোলাই এই একাডেমির মূল লক্ষ্য। একজন ভালো ক্রিকেটার হওয়ার পাশাপাশি এখানে দীক্ষা দেওয়া হয় ভালো একজন মানুষ হওয়ারও।

 

এর পেছনে যে মানুষটি গেল ২৫ বছর ধরে নীরবে কাজ করে যাচ্ছেন, তিনি হলেন একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা সিলেটের স্বনামধন্য ক্রিকেট কোচ এম এ হাসান। ‘বেস্ট অব হাসান’ নামে শুরু হওয়া এই ক্রিকেট একাডেমি আজ সার্ধশত বছর পেরিয়ে রূপ পেয়েছে প্লে মেট ক্রিকেট একাডেমি নামে। মূলত কোচ এম এ হাসানের নিরলস পরিশ্রমেই ক্রিকেট নিয়ে স্বপ্ন দেখা কিশোররা খুজে পাচ্ছে আলোর দীশা।

 

প্রচারের আলোতে না থাকলেও পর্দার অন্তরালে থেকে হাজারো ক্রিকেটার গড়ার কারিগর এম এ হাসান একজন নিখাদ ক্রিকেটপ্রেমী। পঁচিশ বছর পূর্তির আনন্দঘন আয়োজনে সামিল হওয়া সকল ক্রিকেটারকে আন্তরিক অভিবাদন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘খেলাধুলায় জড়িত কোন কিশোর কখনই মাদকাসক্ত হবে না,মানসিকতায় দেশপ্রেমে একতায় সে থাকবে স্বমহিমায় উজ্জীবিত। এ কারণে সন্তানদের মাঠমুখী করে প্রতিযোগিতামুলক ক্রিকেটের জন্য গড়ে তোলার জন্য একাডেমির বিকল্প নেই।’

 

‘‘পেশা হিসেবে ক্রিকেট আজ অন্যতম আকর্ষণীয় একটি মাধ্যম হয়ে উঠেছে সারাবিশ্বে। ‘খেললে সময় নষ্ট হয়’- এরকম মানসিকতা সচেতন কোন অভিভাবকই এখন মনে করেন না । শারীরিক সুস্থতা আর মনন চর্চায় ক্রীড়ার কোন বিকল্প নেই।’’

শেয়ার করুন :