১৬ বছর পর সুযোগ, পারবে বাংলাদেশ? ১৬ বছর পর সুযোগ, পারবে বাংলাদেশ? – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর প্রতিবেদক :: আন্তর্জাতিক ফুটবলে বাংলাদেশের শিরোপা-উচ্ছ্বাসের ক্ষণ এসেছে কদাচিৎ। সর্বশেষ ২০০৩ সালে কোনোও শিরোপা উঁচিয়ে ধরে জাতীয় দল। এরপর পেরিয়েছে দীর্ঘ প্রায় ১৬ বছর। কিন্তু শিরোপা হাতে উল্লাস করা হয়নি বাংলাদেশের। এবার এসেছে সেই সুযোগ।

 

নেপালের বিপক্ষে দুই ম্যাচের প্রীতি সিরিজে আজ মঙ্গলবার দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে মাঠে নামবেন জামাল ভুঁইয়ারা। গেল শুক্রবার প্রথম ম্যাচে ২-০ গোলে জয় পায় বাংলাদেশ। আজকের ম্যাচে জয়ের ধারাবাহিকতা বজায় থাকলেই সিরিজের ট্রফি নিজেদের করে নেবেন মাহবুবুর রহমান সুফিলরা।

 

২০০৩ সালে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয় করেছিল বাংলাদেশ। এরপর দেড় যুগ পেরোলেও কোনো শিরোপা ধরা দেয়নি লাল-সবুজের জার্সিধারীদের হাতে।

 

এই দীর্ঘ সময়ের মধ্যে জাতীয় দল সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ এবং বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপের ফাইনালে উঠলেও চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বাদ পায়নি। জাতীয় দল না পারলেও বয়সভিত্তিক দলগুলোর হাত ধরে মাঝেমধ্যে সাফল্য এসেছে। ২০১০ সালে ঢাকায় আফগানিস্তানকে হারিয়ে সাউথ এশিয়ান গেমসে সোনা জিতেছিল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল। ২০১৫ সালে ঘরের মাঠে জুনিয়র সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে অপরাজিত থেকে শিরোপা নিজেদের করে নিয়েছিল বাংলাদেশের কিশোররা।

 

এবার জাতীয় দলের সামনে এসেছে ব্যর্থতার চোরাবালি থেকে বের হয়ে আসার।

 

নেপালের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ দুটিকে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) সিরিজে পরিণত করেছে। ‘মুজিববর্ষ ফিফা আন্তর্জাতিক প্রীতি সিরিজ’ নামে ট্রফির জন্য লড়াই করছে বাংলাদেশ-নেপাল। মূলত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এমন আয়োজন।

 

আয়োজনটা রাঙাতে উন্মুখ বাংলাদেশের ফুটবলাররা। প্রথম ম্যাচে দারুণ জয়ে এগিয়ে থাকায় আজ জয়ী হলে তো কথাই নেই, ড্র করলেও চলবে সাদউদ্দিনদের। এমনকি বাংলাদেশ যদি ২-১ গোলের ব্যবধানে হারে, তাও ট্রফি নিজেদের হয়ে যাবে। কারণ, গোল গড়ে তখন এগিয়ে থাকবেন নাবীব নেওয়াজ জীবনরা।

 

ট্রফি জয়ের সামনে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক জামাল ভুঁইয়া আজকের ম্যাচটিকে নিচ্ছেন ফাইনালের মতোই।

 

‘ম্যাচটি ফাইনালের মতো। জিতলে বাংলাদেশের ফুটবলের জন্য খুবই ভালো। হারলে সবাই পকপক (সমালোচনা) করবে। সুতরাং আমাদের জিততেই হবে।’

 

অধিনায়ক যখন ‘জিততেই হবে’ বলে সংকল্প করেন, তখন সেই অনুরণন ছড়িয়ে পড়ার কথা পুরো দলের মধ্যেই।

শেয়ার করুন :