সৌরভের প্রশংসা, গাভাস্কারের ক্ষোভ সৌরভের প্রশংসা, গাভাস্কারের ক্ষোভ – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: ভারতের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক কে? অনেকেই একবাক্যে বলে দেন, সৌরভ গাঙ্গুলী। এই বাঙালি অধিনায়ক নাকি ভারতেক লড়তে শিখিয়েছেন, বদলে দিয়েছেন, জয়ী হতে শিখিয়েছেন।

 

এমনটাই বলে থাকেন অনেক বোদ্ধা, বিশ্লেষক। এই যেমন সম্প্রতি ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক নাসের হুসেইন বলেন, সৌরভ গাঙ্গুলী অধিনায়ক হওয়ার আগে মানসিকভাবে দুর্বল ছিলেন ভারতের খেলোয়াড়েরা। গাঙ্গুলীই দলকে মানসিকভাবে উজ্জীবিত ও শক্তিশালী করেছেন।

 

সৌরভ গাঙ্গুলীর এমন প্রশংসা শুনে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দেশটির কিংবদন্তি সুনীল গাভাস্কার। তিনি বলছেন, গাঙ্গুলীর প্রশংসা করতে গিয়ে ভারতীয় ক্রিকেট সংস্কৃতিকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়েছে।

 

মিড ডে’তে নিজের কলামে লিখেছেন, ‘‘নাসের হুসেন বলেছে, আগে ভারত দল প্রতিপক্ষকে ‘শুভ সকাল’ বলতো এবং হাসতো। মনোভাবটা দেখুন, যদি আপনি ভদ্র আচরণ করেন, তাহলেই আপনি দুর্বল! প্রতিপক্ষের মুখের সামনে গিয়ে উদ্ধত আচরণ না করলেই আপনি দুর্বল!’’

 

‘‘তার মানে কী সে (নাসের) ইঙ্গিতে বলছে শচীন টেন্ডুলকার, রাহুল দ্রাবিড়, বীরেন্দর শেবাগ, ভিভিএস লক্ষ্মণ, অনিল কুম্বলে, হরভজন সিংয়ের মতো খেলোয়াড়েরা মানসিকভাবে শক্ত ছিল না? তাঁরা বুকে চাপড় দিয়ে হুংকার দিত না, গালি বা চিৎকার দিত না, অশোভন আচরণ করত না, এ কারণে তারা দুর্বল?’’

 

নিজেদের দিনগুলোর স্মৃতিচারণ করে গাভাস্কার বলছেন, নাসের যে ভারতীয় দলকে ‘লড়তে না জানা’ হিসেবে ইঙ্গিত দিয়েছেন, সেই ভারতই কিন্তু ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ পর্যন্ত জিতেছে।

 

‘‘আর সত্তর ও আশির দশকের দলগুলোর দৃঢ়তা সম্পর্কে সে (নাসের) কী জানে? এ দলগুলো ঘরের মাঠের মতো বাইরেও সফল ছিল। হ্যাঁ, গাঙ্গুলী শীর্ষ মানের অধিনায়ক ছিল। ভারতীয় ক্রিকেটের খুবই গুরুত্বপূর্ণ এক সময়ে অধিনায়কত্ব করেছে। কিন্তু তার আগের দলগুলো নরম ছিল, এ কথা হাস্যকর।’’

শেয়ার করুন :