সামনে নেপাল: অনুশীলনে ‘সিরিয়াস’ বাংলাদেশ সামনে নেপাল: অনুশীলনে ‘সিরিয়াস’ বাংলাদেশ – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর প্রতিবেদক :: নেপালের বিপক্ষে দুটি প্রীতি ম্যাচ দিয়ে মহামারিকালের দীর্ঘ খরা কাটিয়ে ফুটবলে ফিরবে বাংলাদেশ। আগামী মাসের ১৩ ও ১৭ নভেম্বর ম্যাচ দুটি হবে ঢাকায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে। ওই ম্যাচ দুটিকে সামনে রেখে বাংলাদেশ দল এখন অনুশীলনে ব্যস্ত।

 

জাতীয় দলের ডিফেন্ডার তপু বর্মন বলছেন, অনুশীলনে দলের সবাই ‘সিরিয়াস’ ও ‘মনোযোগী’। আর উইঙ্গার মোহাম্মদ ইব্রাহিম ম্যাচ দুটিতে জয়ের লক্ষ্যের কথা জানিয়েছেন।

 

গেল মার্চ থেকে দেশের ফুটবল বন্ধ। বিশ্বকাপ এবং এশিয়ান কাপের যৌথ বাছাইয়ের যেসব ম্যাচ ছিল বাংলাদেশের, সেগুলোও স্থগিত হয়ে গেছে। বাছাইয়ের ম্যাচকে সামনে রেখে জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরু হয়েছিল। কিন্তু ম্যাচ স্থগিত হয়ে যাওয়ায় ক্যাম্পও বন্ধ করে দেওয়া হয় ক’দিন পর। মহামারির কারণে দেশের ঘরোয়া ফুটবলের ২০১৯-২০ মৌসুমও পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়।

 

দীর্ঘ কয়েক মাসের বিরতি শেষে অবশেষে দেশের মাঠে ফুটবল ফিরছে আন্তর্জাতিক ম্যাচ দিয়ে। নেপালের বিপক্ষে সর্বশেষ দুটি ম্যাচে হারই সঙ্গী হয়েছিল বাংলাদেশের। এবার সেই ‘বদলা’ নেওয়ার কথা জানিয়েছেন ফুটবলাররা। সেজন্য অনুশীলনে পাঁচ দিন ধরে ঘাম ঝরাচ্ছেন সাদউদ্দিন-সোহেল রানারা।

 

বাংলাদেশের প্রাথমিক দলে ৩৬ জনকে ডাকা হয়েছে। এর মধ্যে বসুন্ধরা কিংসের খেলোয়াড় আছেন ১৪ জন। তন্মধ্যে ১২ জন কাল মঙ্গলবার ক্যাম্পে যোগ দিয়েছেন। আজ বুধবার থেকে অনুশীলনে নেমেছেন ১১ জন। ফিনল্যান্ড প্রবাসী কাজী তারিক রায়হান বিদেশ থেকে ফেরায় আপাতত কোয়ারেন্টিনে আছেন।

 

বসুন্ধরার হয়ে খেলা তপু বর্মন আজ কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে জাতীয় দলের সঙ্গে প্রথম দিনের অনুশীলন সেরে দলের ‘সিরিয়াসনেসের’ কথা বলছিলেন।

 

‘সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো সাত মাস পর খেলার মধ্যে ফিরব। লক্ষ্য নেপালের বিপক্ষে দুটি ম্যাচ। কোভিডের কারণে ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক খেলা বাতিল হয়ে যাওয়ায় অনেক দিন পর ফিরছি। ভালো লাগছে। ক্যাম্প শুরু হয়েছে। সবাইকে সিরিয়াস মনে হয়েছে। অনুশীলনে তা দেখে ভালো লাগছে।’

 

‘ফিটনেস লেভেল দেখে যদি চিন্তা করি, আমরা যারা বসুন্ধরায় ছিলাম, আমাদের তা ধরে রাখতে হবে। আমরা ৮ সপ্তাহের অনুশীলন করেছি, যা নেপালের বিপক্ষে খেলার আগে কাজে লাগবে। অনেক দিন পর খেলা, নিজেদের মাঠে। ভালো পারফরম্যান্স করে দেখাতে চাই। তিন পয়েন্ট নিতে চাই। এখানে সবাই মনোযোগী।’

 

বসুন্ধরা কিংসের হয়ে খেলেন উইঙ্গার মোহাম্মদ ইব্রাহিমও। জাতীয় দলের সঙ্গে আজ প্রথম দিনের অনুশীলনে ছিলেন তিনিও।

 

তার কণ্ঠে জয়ের লক্ষ্যই ফুটে ওঠলো, ‘আমরা তো খেলোয়াড়। মাঠে ফিরতে পেরে ভালো লাগছে। বিশেষ করে জাতীয় দলের ক্যাম্পে। করোনাভাইরাসের সময়ে কোচ যেভাবে বলেছে, সেভাবেই ফিটনেস ধরে রাখার চেষ্টা করেছি। আমরা নেপালের বিপক্ষে দুটি ম্যাচই জিততে চাই।’

শেয়ার করুন :