সাকিবের ক্যারিয়ারে ‘সেরা মুহূর্ত’ আসেনি! সাকিবের ক্যারিয়ারে ‘সেরা মুহূর্ত’ আসেনি! – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর প্রতিবেদক :: সাকিব আল হাসান ক্যারিয়ারে অর্জন করেছেন অনেক কিছুই। অনেক ক্রিকেটারের কাছেই সাকিবের অর্জন রীতিমতো হিংসনীয়। কিন্তু বাঁহাতি এই অলরাউন্ডার বলছেন, তার ক্যারিয়ারের সেরা মুহুর্ত এখনও ‘আসেনি’। বাংলাদেশের হয়ে বিশ্বকাপ জয়ই হবে সেরা মুহূর্ত।

 

আইসিসির দেওয়া এক বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে সাকিব এখন মুক্ত। যেকোনো সময় ক্রিকেট মাঠে নামতে পারবেন তিনি। এই প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে সংবাদকর্মী ও ভক্ত-সমর্থকদের নির্দিষ্ট কিছু প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন সাকিব।

 

একটি প্রশ্নে একজন জিজ্ঞেস করেছিলেন, সাকিবের ক্যারিয়ারের সেরা মুহূর্ত কোনটি।

 

এর উত্তরে সাকিব বলেন, ‘সেরা মুহূর্ত এখনও আসেনি। সেরা মুহূর্ত হবে বাংলাদেশের হয়ে কোনো বিশ্বকাপ জয়, সেটা ওয়ানডে হোক বা টি-টোয়েন্টি।’

 

পরে অবশ্য ব্যক্তিগত অর্জনের মধ্য দিয়ে দুটি সেরা অর্জনের কথা বলেছেন সাকিব।

 

‘এ পর্যন্ত যদি মনে করি, সেরাগুলোর একটি হলো অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে টেস্ট ম্যাচ জয় ও এবারের বিশ্বকাপে আমার পারফরম্যান্স, ব্যক্তিগত দিক থেকে।’

 

অস্ট্রেলিয়াকে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো টেস্টে হারায় ২০১৭ সালে। ঢাকায় হওয়া সেই ম্যাচে প্রথম ইনিংসে ৮৪ রান করেন সাকিব। বল হাতে তিনি ছিলেন দুর্ধর্ষ। দুই ইনিংস মিলিয়ে শিকার করেন ১০ উইকেট! বাংলাদেশ জয় পায় ২০ রানে। ম্যান অব দ্য ম্যাচ হন সাকিব।

 

গেল বছর ইংল্যান্ডে হওয়া বিশ্বকাপে অবিশ্বাস্য রকমের পারফরম্যান্স করেন সাকিব। ৮৬.৫৭ গড়ে ৬০৬ রান করার পাশাপাশি ১১ উইকেট নেন তিনি। এটাই বিশ্বকাপের ইতিহাসে সেরা অলরাউন্ড পারফরম্যান্স।

 

সাকিব বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্নের কথা বলছেন। দু’হাত ভরে সেই সুযোগ আসছে তার সামনে। আগামী তিন বছরে যে তিনটি বিশ্বকাপ হবে!

 

২০২১ সালে ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর ২০২২ সালে হবে অস্ট্রেলিয়ায়। এরপর ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ বসবে ভারতে।

 

সাকিব আল হাসান নিজেই এসব বিশ্বকাপকে ঘিরে নিজের ভাবনা প্রকাশ করেন।

 

‘টি-টোয়েন্টিতে আমি জানি না আমরা কতটা এগিয়েছি। তবে এই সংস্করণের একটা সৌন্দর্য্য হলো, কেউ ফেবারিট নয়, যে কোনো দিন যে কোনো দল যে কাউকে হারাতে পারে। ওইটা আমাদের একটা ভরসা। যেহেতু আমরা এখন নিয়মিত টি-টোয়েন্টি খেলেছি, ২০১৫-১৬ থেকে অনেক ভালো একটা দল আমরা, অনেক বুঝতে পারি কীভাবে খেলা উচিত, সেটা আমাদের সাহায্য করবে আরেকটু ভালো খেলার জন্য।’

 

‘২০২৩ বিশ্বকাপ এখনও বেশ দূরে। করোনাভাইরাসের কারণে সেভাবে খেলাও হয়নি। আমার মনে হয় না এটা নিয়ে কেউ ভাবতে পেরেছে। হয়ত এক-দেড় বছর আগে থেকে ওটা নিয়ে ভাবনা শুরু হবে।’

শেয়ার করুন :