শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশ এইচপির সিরিজ শুরু ১৬ অক্টোবর শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশ এইচপির সিরিজ শুরু ১৬ অক্টোবর – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর প্রতিবেদক :: বাংলাদেশ জাতীয় দল ও হাই পারফরম্যান্স (এইচপি) ইউনিট আগামী মাসে যাবে শ্রীলঙ্কায়। দল দুটি একসাথে করবে অনুশীলন। নিজেদের মধ্যে খেলবে প্রস্তুতি ম্যাচ। এরপর নিজ নিজ সিরিজের জন্য হয়ে যাবে আলাদা।

 

লঙ্কাদ্বীপে মুমিনুল হকদের তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ আছে। যার প্রথমটি শুরু হবে ২৪ অক্টোবর।

 

তবে জাতীয় দলের আগেই শুরু হয়ে যাবে এইচপি দলের সিরিজ। বিসিবি সূত্রে জানা গেছে, আগামী ১৬ থেকে ১৯ অক্টোবর এইচপি দল খেলবে প্রথম আন-অফিশিয়াল টেস্ট ম্যাচ। এরপর দ্বিতীয় ম্যাচ হবে ২৩ থেকে ২৬ অক্টোবর সময়ে।

 

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে হবে ২৯ অক্টোবর। পরের দুটি ১ ও ৪ নভেম্বর।

 

আন-অফিশিয়াল টেস্ট ম্যাচ দুটি এবং ওয়ানডে সিরিজের সবক’টি ম্যাচ হবে শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোতে।

 

শ্রীলঙ্কায় এইচপি ইউনিটের ২৪ জন যেতে পারেন। সেখানে গিয়ে বাংলাদেশ নিজেদের খরচে অনুশীলন করবে প্রায় দুই সপ্তাহ। এরপর এইচপি দলের সিরিজ শুরুর আগে দল চলে যাবে শ্রীলঙ্কার ব্যবস্থাপনায়।

 

তবে এর আগেই বাংলাদেশের এইচপি স্কোয়াড ছোট করে ১৫ থেকে ১৭ জনে নামিয়ে আনা হবে। আন-অফিশিয়াল টেস্ট ম্যাচ দুটি শেষে ওয়ানডে সিরিজের জন্য দু’জন ক্রিকেটার বেশি রাখার চিন্তাভাবনা করছে টিম ম্যানেজমেন্ট।

 

যারা স্কোয়াডে থাকবেন না, তারা ফিরে আসবেন দেশে।

 

রোমাঞ্চিত আফগানরা, দিবা-রাত্রির টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে ‘না’

 

এদিকে, এইচপি ইউনিটের জন্য টবি র‌্যাডফোর্ডকে নতুন কোচ নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ। তিনি ২ সেপ্টেম্বর ঢাকায় আসতে পারেন। এরপর কোয়ারেন্টিনের মেয়াদ শেষে দল নিয়ে কাজ শুরু করবেন তিনি।

 

শ্রীলঙ্কায় যাওয়ার আগে দেশে কয়েকদিনের কন্ডিশনিং ক্যাম্প করবে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কায় গিয়ে জাতীয় দল ও এইচপি দল নিজেদের মধ্যে অন্তত তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে।

 

বর্তমানে এইচপি ইউনিটের ক্রিকেটাররা অনুশীলনের বাইরে। তবে এ নিয়ে সমস্যা হবে বলে মনে করছেন না বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

 

‘এইচপির ক্রিকেটাররাও হোম অনুশীলন করছে। বিসিবি থেকে যে গাইডলাইন দেওয়া হয়েছে, সেটা অনুসরণ করছে তারা। আর সিরিজ শুরুর আগে যথেষ্ট সময় পাবে ফিটনেস ও স্কিল নিয়ে কাজ করার জন্য। মনে হয় না সমস্যা হবে।’

শেয়ার করুন :