শুরু হচ্ছে ‘ওয়ানডে সুপার লিগ’ শুরু হচ্ছে ‘ওয়ানডে সুপার লিগ’ – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: প্রতিবেশী দুই দেশ ইংল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ড আগামী বৃহস্পতিবার থেকে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের লড়াইয়ে নামছে। এটি শুধু প্রথাগত সিরিজই নয়, বরঞ্চ এই সিরিজ দিয়েই শুরু হচ্ছে আইসিসির ‘ওয়ানডে সুপার লিগ’। আজ সোমবার এই তথ্য জানিয়েছে আইসিসি।

 

২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপকে সামনে রেখে সুপার লিগ দিয়ে বাছাই প্রক্রিয়া গেল মে মাসে শুরু হওয়ার কথা ছিল। তবে করোনার কারণে ক্রিকেট স্থগিত হওয়ায় লিগ আর মাঠে গড়ায় নি। বর্তমানে ‘জীবাণুমুক্ত পরিবেশে’ ইংল্যান্ডে ক্রিকেট মাঠে ফিরেছে। শুরুটা হয়েছে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজ দেয়। এবার শুরু হচ্ছে ওয়ানডে সিরিজ।

 

তিন বছর মেয়াদী প্রথম ওয়ানডে সুপার লিগে ১৩টি দল খেলবে। ১২টি টেস্ট খেলুড়ে দেশের সঙ্গে ২০১৫-১৭ আইসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট লিগের বিজয়ী দল নেদারল্যান্ডসও অংশ নেবে লিগে।

 

এই সময়ে আটটি করে সিরিজ খেলবে প্রত্যেক দল। প্রত্যেক সিরিজ হবে তিন ম্যাচের। এর মধ্যে চারটি সিরিজ নিজেদের মাটিতে, চারটি প্রতিপক্ষের মাঠে। প্রতিটি জয়ে ১০ পয়েন্ট করে যোগ হবে। আর ম্যাচ টাই কিংবা পরিত্যক্ত হলে মিলবে ৫ পয়েন্ট করে।

 

২০২৩ সালের অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতে হবে পরবর্তী ওয়ানডে বিশ্বকাপ। স্বাগতিক হিসেবে ভারত খেলবে সরাসরি। আর ওয়ানডে লিগে সব সিরিজ শেষে শীর্ষ সাতটি দল সরাসরি খেলবে ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপে।

 

বাকি পাঁচটি দল খেলবে বাছাইপর্ব। সেখান থেকে দুটি দল পাবে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণের সুযোগ।

 

আইসিসির মহাব্যবস্থাপক জিওফ অ্যালারডিস বলেছেন, ‘এই লিগের মাধ্যমে আগামী তিন বছর ওয়ানডে ক্রিকেটে বাড়তি মাত্রা যোগ হবে। কেননা এর সঙ্গে ২০২৩ সালের বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ জড়িত। সুপার লিগের ফলে বিশ্বের ক্রিকেট দর্শকরা আরও জমজমাট খেলা দেখতে পারবে।’

 

‘গত সপ্তাহে ২০২৩ সালের বিশ্বকাপটি ওই বছরের শেষ দিকে আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর ফলে করোনাভাইরাসের কারণে যেসব সিরিজ স্থগিত হয়ে গেছে, সেগুলো আয়োজন করার যথেষ্ট সময় পাবো আমরা। এখন আমরা মাঠের খেলার মাধ্যমেই বাছাইয়ের সিদ্ধান্ত নিতে পারবো।’

শেয়ার করুন :