যে তিন ক্লাবে যেতে পারেন মেসি যে তিন ক্লাবে যেতে পারেন মেসি – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: লিওনেল মেসি নিজের প্রিয় ক্লাব বার্সেলোনা ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিয়েছেন বার্সার বোর্ড সভাপতিকে। মেসির সাথে বার্সার যে চুক্তি, সেই চুক্তির একটি শর্ত অনুসারে মেসি এখনই দল ছাড়তে চাইছেন। যদিও ২০২১ সাল অবধি মেসির সঙ্গে চুক্তি আছে বার্সার।

 

মেসি যদি শেষ অবধি বার্সা ত্যাগ করেন, তাহলে তাঁর পরবর্তী গন্তব্য হবে কোথায়? এ নিয়ে শুরু হয়ে গেছে নানা জল্পনা আর গুঞ্জন।

 

অন্তত তিনটি ক্লাবের আগ্রহকে কেন্দ্র করে গুঞ্জনের ডালপালা মেলছে। এ তিন ক্লাব হলো- ইতালির ইন্টার মিলান, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যানচেস্টার সিটি এবং ফরাসি ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)।

 

ফুটবল বিশ্লেষকরা বলছেন, এ তিন ক্লাবের যেকোনো একটিতে যেতে পারেন মেসি।

 

স্প্যানের বিখ্যাত সংবাদমাধ্যম মার্কা এ তিন ক্লাবকে মেসিকে পাওয়ার দৌড়ে এগিয়ে রাখার ক্ষেত্রে ব্যাখ্যা দিয়েছে।

 

ইন্টার মিলান>>
মার্কা বলছে, ইতালির সিরি আ’র দল ইন্টার মিলান গেল কয়েক মৌসুম ধরে লিওনেল মেসিকে দলে পেতে আগ্রহ প্রকাশ করে আসছে। মেসিকে দলে ভেড়াতে ২৬০ মিলিয়ন ইউরো পর্যন্ত খরচ করতে রাজি তাঁরা, এমনটাই ইতালির সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। এই পরিমাণ অর্থ খরচ করা মানে ইউরোপের ফুটবলে ট্রান্সফার ফির রেকর্ড গড়া। এখন অবধি নেইমার সর্বোচ্চ ২২২ মিলিয়ন ইউরো ট্রান্সফার ফিতে বার্সা ছেড়ে পিএসজিতে গেছেন।

 

ট্রান্সফার ফির এই লোভনীয় অফার তো আছেই, এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আরো কিছু কারণও।

 

মেসির বাবা কিছু দিন আগে ইতালির মিলান শহরের পোর্তা নুয়োবা এলাকায় নতুন বাড়ি কিনেছেন। মেসিও যেখানে আবাস গড়বেন বলে জল্পনা আছে।

 

এছাড়া নিজের প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো বর্তমানে ইতালির ক্লাব জুভেন্টাসে খেলছেন। রোনালদো রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ায় মেসি নাকি আগের সেই প্রতিদ্বন্দ্বী মনোভাবের তাড়না অনুভব করছেন না। এখন তিনি ইতালির কোনো দলে গিয়ে ফের রোনালদোর মুখোমুখি হতে আগ্রহী।

 

এমনটা যদি হয়, তবে বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদের যে লড়াই দেখা গেছে, সেই লড়াই দেখা যাবে জুভেন্টাস ও ইন্টার মিলানের মধ্যে।

 

ম্যানচেস্টার সিটি>>
বার্সেলোনায় মেসির স্বর্ণযুগ শুরু হয়েছিল কার সময়ে? যে গুয়ার্দিওলার যখন দলটির কোচ ছিলেন। চার মৌসুম বার্সার কোচ ছিলেন গুয়ার্দিওলা। ওই সময়ে মেসি নিজের ক্যারিয়ারের সেরা সময় পার করেছেন।

 

গুয়ার্দিওলা এখন ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটির কোচ। তিনি নিজের প্রিয় শিষ্যকে দলে পেতে আগ্রহী।

 

মেসির মধ্যেও নাকি নিজের প্রিয় গুরুর সান্নিধ্যে ফিরে যাওয়ার একটা তাড়না আছে। এছাড়া ওই ক্লাবে মেসির বন্ধু সার্জিও অ্যাগুয়েরোও আছেন।

 

এক্ষেত্রে ট্রান্সফার ফির বিষয়টি যদি সামনে আসে, তবে বিপুল অঙ্কের টাকা খরচ করার মতো সামর্থ্য আছে ম্যান সিটির।

 

পিএসজি>>
প্রিয় বন্ধু নেইমার আছেন পিএসজিতে। ফ্রান্সের শীর্ষ এই দলটিতে যোগ দিতে মেসির জন্য এ বিষয়টিই যথেষ্ট বলে মনে করছেন অনেকেই।

 

মেসি চেয়েছিলেন বার্সায় ফের নেইমারকে ফেরানো হোক। ফের একসাথে জুটি বাঁধতে চেয়েছিলেন তাঁরা। কিন্তু বার্সা বোর্ড নেইমারকে ফেরানোর ক্ষেত্রে খুব বেশি আগ্রহ দেখায় নি। এ নিয়ে ক্ষুব্ধ হন মেসি।

 

এখন বার্সা ছেড়ে মেসি যোগ দিতে পারেন পিএসজিতে। দলটিও তাঁকে পেতে আগ্রহী। এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল শেষে পিএসজির কোচ টমাস টুখেল বলেন, ‘মেসিকে দলে পেতে চাইবেন না কোন কোচ?’ তাঁর এ মন্তব্যে মেসিকে পাওয়ার আগ্রহের পারদ যথেষ্টই আছে।

 

পিএসজি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে চায় যেকোনো মূল্যে। এক্ষেত্রে নেইমার ও এমবাপ্পের সঙ্গে যদি মেসি যুক্ত হন, তবে দলটি হয়ে ওঠবে ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু। শক্তিও বেড়ে যাবে বহুগুণ। এসব হিসেবনিকেশ করেই পিএসজি মেসির জন্য টাকা ঢালতে প্রস্তুত হচ্ছে বলে গুঞ্জন রয়েছে।

 

মেসি কোন দলে যাবেন, সেটা তাঁর নিজস্ব সিদ্ধান্ত। কিন্তু বার্সা ছেড়ে মেসি যেখানেই যান না কেন, নতুন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হওয়ার রোমাঞ্চ অনুভব করবেন তিনি। যা তাঁকে আরো ক্ষুধার্ত করবে বলেই মত বিশ্লেষকদের।

শেয়ার করুন :