মালদ্বীপে যাচ্ছে বসুন্ধরা কিংস মালদ্বীপে যাচ্ছে বসুন্ধরা কিংস – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর প্রতিবেদক :: ২৩ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর সময়ের মধ্যে মালদ্বীপে এএফসি কাপের ‘ই’ গ্রুপের বাকি ম্যাচগুলো হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মহামারি করোনাভাইরাস পরিস্থিতি, আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচলে বিধিনিষেধ, কয়েকটি গ্রুপের খেলার ভেন্যু ঠিক করতে না পারার কারণে চলতি বছরের প্রতিযোগিতাটি বাতিল করেছে এএফসি।

 

ফলে সকল প্রস্তুতি থাকলেও মালদ্বীপে যাওয়া হয়নি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংসের। এএফসি কাপের জন্য দলটি ব্রাজিলের দুই ফুটবলারকেও দলে ভিড়িয়েছিল। আগে থেকেই ছিলেন আর্জেন্টাইন হার্নান বার্কোস। কিন্তু এএফসি কাপ বাতিল হওয়ায় হতাশ হন দলটির কোচ অস্কার ব্রুজন।

 

এএফসি কাপের জন্য না হলেও এবার মালদ্বীপে যাওয়ার পরিকল্পনা করছে বসুন্ধরা কিংস। এএফসি কাপে দেশটির দুটি দল- টিসি স্পোর্টস এবং মাজিয়া স্পোর্টস অ্যান্ড রিক্রিয়েশন ক্লাবের বিপক্ষে ম্যাচ ছিল বসুন্ধরার। এ দুটি দলের বিপক্ষেই এখন দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলতে চাইছে সাম্প্রতিক সময়ে জনপ্রিয় হয়ে ওঠা ঢাকার দলটি। এজন্য আগামী মাসেই মালদ্বীপে যাওয়ার পরিকল্পনা তাঁদের।

 

মূলত আগামী ডিসেম্বরে বাংলাদেশের ঘরোয়া ফুটবল মৌসুমএবং আগামী বছরের এএফসি কাপকে সামনে রেখে আগে থেকেই নিজেদের প্রস্তুত করতে চায় বসুন্ধরা কিংস।

 

যেমনটি বলছিলেন বসুন্ধরা কিংসের সভাপতি মো. ইমরুল হাসান, ‘আমরা প্রাক-মৌসুমের প্রস্তুতি হিসেবে দেশের বাইরে গিয়ে প্রীতি ম্যাচ খেলবো। এবং সেটা মালদ্বীপে। মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস এবং মাজিয়ার বিরুদ্ধে এএফসি কাপে আমাদের খেলা ছিল। ওই দুটি দলের বিরুদ্ধেই আমরা প্রীতি ম্যাচ খেলবো।’

 

তিনি জানান, অক্টোবরের মাঝামাঝিতে মালদ্বীপে যাওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

 

বসুন্ধরা কিংস বাংলাদেশের ফুটবলে নিত্য-নতুন চমক দিয়ে যাচ্ছে। দলটিতে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের সাবেক স্ট্রাইকার, লিওনেল মেসির সতীর্থ হার্নান বার্কোস খেলছেন।

 

গেল ১১ মার্চ এএফসি কাপের ম্যাচে মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টসকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল বসুন্ধরা কিংস। ওই ম্যাচে প্রথমবারের মতো ঢাকার দলটির জার্সি গায়ে খেলতে নামেন বার্কোস। করেন ৪ গোল! তাঁর দুর্দান্ত ফুটবল মুগ্ধতা ছড়ায় বাংলাদেশে।

 

আর্জেন্টিনার পর বসুন্ধরা ব্রাজিলের দুই ফুটবলারকে দলে টেনে চমকে দেয়। সম্প্রতি দলে নেওয়া হয় ব্রাজিলের রবসন রবিনহো ও জোনাথন ফার্নান্দেজকে। এ তিনজনই আছেন ঢাকায়।

 

এরপর মাত্র ক’দিন আগে ইরানের ডিফেন্ডার খালেদ শাফিকে দলে ভিড়িয়েছে বসুন্ধরা। তিনি আগামী মাসের শুরুর দিকে আসতে পারেন ঢাকায়।

 

রবিনহো, ফার্নান্দেজ ও শাফির সঙ্গে এক বছরের চুক্তি করেছে বসুন্ধরা কিংস। অন্যদিকে হার্নান বার্কোসের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে ডিসেম্বরে। তাঁকে ধরে রাখতে চায় বসুন্ধরা।

শেয়ার করুন :