ব্রডকে বাইরে রাখায় ‘ভাগ্যবান’ ইংল্যান্ড! ব্রডকে বাইরে রাখায় ‘ভাগ্যবান’ ইংল্যান্ড! – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: ঘরের মাঠ সাউদাম্পটনের রোজ বৌলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে হেরেছে ইংল্যান্ড। কাল রাতে (বাংলাদেশ সময়) দারুণ লড়াইয়ের ম্যাচে ক্যারিবিয়ানরা ৪ উইকেটে হারায় ইংলিশদের।

 

করোনার বিরতি শেষে শুরু হওয়া আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রথম ম্যাচে হেরে যাওয়া ইংল্যান্ড কিছুটা সমালোচনার মুখে পড়েছে।

 

বিশেষ করে একাদশে স্টুয়ার্ট ব্রডকে না রাখার বিষয়টি অনেকেই মানতে পারছেন না। তারা মনে করছেন, নতুন বলে জেমি অ্যান্ডারসন ও স্টুয়ার্ট ব্রডের জুটি গত কয়েক বছর ধরেই ইংল্যান্ডের সাফল্যের অন্যতম কারিগর। ব্রড থাকলে ক্যারিবিয়ানদের হারানো সহজ হতো।

 

সাউদাম্পটনে অ্যান্ডারসনের সঙ্গে জুটি বেঁধেছিলেন জফ্রা আর্চার ও মার্ক উড।

 

নিয়মিত অধিনায়ক জো রুটের বিশ্রামের কারণে ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দেওয়া বেন স্টোকস ম্যাচ শেষে ব্রডের বিষয়ে প্রশ্নের সম্মুখীন হন। কিন্তু তিনি ব্রডের বাদ পড়াটাকে নেতিবাচক হিসেবে দেখছেন না। ব্রডের মতো অভিজ্ঞ বোলারকে একাদশে বাইরে রাখতে পারায় নিজেদেরকে ভাগ্যবান মনে করছেন স্টোকস।

 

অলরাউন্ডার বেন স্টোকস বলেন, ‘স্টুয়ার্ট ব্রডকে বাইরে রাখায় আমার কোন আফসোস নেই। আমরা ভাগ্যবান যে তাঁর মতো একজনকে বাইরে রাখতে পেরেছি। সে যদি দ্বিতীয় ম্যাচে দলে ফেরে, আমি তার কাছ থেকে অবশ্যই উইকেটের আশা করব।’

 

স্টোকস মূলত ‘ভাগ্যবান’ বলতে এটা বোঝাতে চেয়েছেন, ইংল্যান্ড দলে এখন পারফর্মারের অভাব নেই। তাই ব্রডের মতো অভিজ্ঞ পেসারও একাদশের বাইরে থাকছেন।

 

একাদশ থেকে বাদ পড়ার পর সংবাদমাধ্যমে নিজের হতাশা প্রকাশ করেন স্টুয়ার্ট ব্রড। এটাকেও ইতিবাচকভাবে দেখছেন স্টোকস।

 

‘সে (ব্রড) যদি সাক্ষাৎকারে নিজের রাগটা না দেখাতো, তাহলেই আমি বরং হতাশ হতাম। সাক্ষাৎকারে ব্রড জাতীয় দলের প্রতি নিজের প্যাশন এবং ইচ্ছাটা ভালোভাবে বুঝিয়ে দিয়েছে। তাঁর এখনও অনেক সময় আছে। তবে আমি সত্যিই কোন আফসোস করছি না (সাউদাম্পটন টেস্টে তাঁকে না রাখায়)। এমনটা করলে যাদেরকে দলে নিয়েছি, তাদের প্রতি একটা ভুল বার্তা যেতো।’

 

দ্বিতীয় টেস্টে হয়তো ব্রডকে ফেরানো হতে পারে। সাথে যোগ দেবেন নিয়মিত অধিনায়ক জো রুট। ব্রড ফিরলে বাদ পড়ার কোপটা মার্ক উডের ওপর বেশি পড়ার সম্ভাবনা আছে।

শেয়ার করুন :