বিপ টেস্টে চমকে দিলেন সাকিব! বিপ টেস্টে চমকে দিলেন সাকিব! – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর প্রতিবেদক :: ‘দ্য কিং ইজ ব্যাক’! সাকিব আল হাসানের বেলায় যেন এই কথাটা একেবারে পুরোপুরি মিলে যায়। এক বছরের নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার পর প্রথমবার ‘পরীক্ষা’ দিতে নেমেই চমকে দেওয়া ‘ফলাফল’ উপহার দিয়েছেন এই বাঁহাতি অলরাউন্ডার।

 

আজ বুধবার ফিটনেসের প্রমাণ দিতে বিপ টেস্ট দিয়ে সর্বোচ্চ স্কোর করেছেন সাকিব।

 

তিন দফায় জুয়াড়ির কাছ থেকে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়ে সেটি বিসিবি বা আইসিসিকে না জানানোয় সাকিব আল হাসানকে এক বছরের জন্য ক্রিকেটে নিষিদ্ধ করা হয়। আইসিসির দেওয়া এই নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হয় গত ২৯ অক্টোবর। এখন সাকিবের খেলার ক্ষেত্রে কোনো বাধা নেই।

 

সাকিব ছিলেন স্ত্রী-সন্তানদের সাথে যুক্তরাষ্ট্রে। সেখান থেকে গত শুক্রবার ভোর রাতে দেশে ফিরেন তিনি।

 

চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে পাঁচটি দল নিয়ে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের আয়োজন করছে বিসিবি। এই টুর্নামেন্টে খেলতে জাতীয় দল ও হাই পারফরম্যান্স (এইচপি) স্কোয়াডের ক্যাম্পের বাইরে থাকা ক্রিকেটারদের ফিটনেসের প্রমাণ দিতে হচ্ছে।

 

সাকিব আল হাসানের জন্য ফিটনেসের পরীক্ষা ছিল বাধ্যতামূলক। গত সোমবার তার এই ফিটনেস পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও হয়নি।

 

আজ বুধবার সকালে মিরপুর শের-ই-বাংরা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গিয়ে ফিটনেস পরীক্ষায় অংশ নেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। ফিটনেস পরীক্ষার জন্য বিসিবি বিপ টেস্ট নির্ধারণ করে মানদণ্ড ১১ বেঁধে দিয়েছে। ফিটনেস ঠিক আছে, এটা প্রমাণ করতে ক্রিকেটারদের স্কোর ১১-এর কম হতে পারবে না।

 

সাকিব ফিটনেস পরীক্ষা দিলেন এবং সাথে চমকেও দিলেন। এক বছরেরও বেশি সময় পর প্রথমবার ফিটনেস পরীক্ষা দিয়ে এই অলরাউন্ডার স্কোর করেছেন ১৩.৭!

 

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের জন্য যতো ক্রিকেটার ফিটনেস পরীক্ষা দিয়েছেন, এর মধ্যে সাকিবের স্কোরই সর্বোচ্চ। এর আগে কুমিল্লার পেসার মেহেদি হাসান ১৩.৬ স্কোর করেছিলেন। বেশিরভাগ ক্রিকেটারের স্কোরই ছিল ১২-এর ঘরে।

 

কেন তিনি সেরাদের সেরা, সেটাই যেন আরেকবার দেখিয়ে দিলেন সাকিব আল হাসান!

শেয়ার করুন :