বাফুফে নির্বাচন: সভাপতি পদে ‘চমক’ বাদল-শফিক বাফুফে নির্বাচন: সভাপতি পদে ‘চমক’ বাদল-শফিক – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর প্রতিবেদক :: কাজী মো. সালাউদ্দিনই কী টানা চতুর্থ মেয়াদে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি পদে নির্বাচিত হচ্ছেন? এমন প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছিল ফুটবলপাড়ায়। কেননা, সভাপতি পদে যে আর কাউকেই তেমন আগ্রহ নিয়ে কথা বলতে কিংবা এগিয়ে আসতে দেখা যাচ্ছিল না। তবে সালাউদ্দিন এবার সম্ভবত ‘বিনা যুদ্ধে’ পার পাচ্ছেন না।

 

বাফুফে নির্বাচনের জন্য চমকে দিয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন সাবেক জাতীয় ফুটবলার বাদল রায় ও সাবেক ফুটবলার শফিকুল ইসলাম মানিক।

 

বাদল রায় বাফুফের সদ্য বিদাী কমিটির সহ-সভাপতি। শফিকুল ইসলাম মানিক শেখ জামাল ক্লাবের কোচ ও দীর্ঘদিন ধরে সংগঠক হিসেবে কাজ করছেন।

 

আগের কমিটিতে সহ-সভাপতি থাকায় বাদল রায়কে ঘিরে সভাপতি পদে এবার কিছুটা আলোচনা ছিলই। কিন্তু কয়েক দিন আগে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় তিনি শেষ অবধি নির্বাচন করেন কী-না, এ নিয়ে সংশয় ছিল। মনোনয়নপত্র সংগ্রহের প্রথম দু’দিনে তিনি বা তাঁর পক্ষে কেউ মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন নি। আজ ছিল মনোনয়নপত্র সংগ্রহের শেষ দিন।

 

এ দিন নিজে না এলেও প্রতিনিধি পাঠিয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন বাদল রায়।

 

সভাপতি পদে প্রার্থী হওয়া প্রসঙ্গে বাদল রায় বলছেন, ‘আমি বাংলাদেশ ফুটবলের সাথে সবসময় ছিলাম, ফুটবলের উন্নতি জন্য আমি কাজ করতে চেষ্টা করেছি সবসময়। ফুটবলের ব্যর্থতার সাথে ও ছিলাম। সত্যকে সত্য বলতে আমি কখনো পিছপা হইনি। নেতৃত্বের কারণে কখনো কখনো আমার কাজ আমি করতে পারি নাই।’

 

‘তাই আমি আমার কাজকে পূর্ণরূপে সাজাতে এবার আমি বাফুফের সভাপতি পদে নির্বাচন করতে আগ্রহী। আমি ফুটবল ফেডারেশনের ও ফুটবলের সাথে জড়িত এবং বাংলাদেশের সকল মানুষের দোয়া চাই।’

 

তবে সবাইকে চমকে দিয়েছেন শফিকুল ইসলাম মানিক। বাফুফে নির্বাচন নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই নানা কথার বাণ চলছিল। কিন্তু কখনোই মানিক নিজেকে নির্বাচনে আগ্রহী হিসেবে সামনে আনেন নি। অথচ সেই তিনিই আজ মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

 

বাফুফে নির্বাচনের সব খবর>>

বাফুফে নির্বাচন: হঠাৎ পরিবর্তন সালাউদ্দিনের প্যানেলে

বাফুফে নির্বাচন: মনোনয়নপত্র কিনলেন আরো ১১ জন

অবশেষে হচ্ছে বাফুফে নির্বাচন

বাফুফে নির্বাচনের তফসিল ৩ সেপ্টেম্বর

 

বাদল রায় ও শফিকুল ইসলাম মানিক যদি পণ করেন যে, ‘বিনা যুদ্ধে নাহি দেব সুচ্যগ্র মেদিনী’। তাহলে কাজী সালাউদ্দিনকে কঠিন লড়াইয়ে হয়তো এবার অবতীর্ণ হতে হবে। আজ সোমবার কাজী সালাউদ্দিন তাঁর পূর্ণাঙ্গ প্যানেল ঘোষণা করেছেন। ২১টি পদেই লড়ছে তাঁর সম্মিলিত পরিষদ।

 

আগামী ৩ অক্টোবর বাফুফের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

শেয়ার করুন :