বাংলাদেশে বাঁহাতি স্পিনের পথিকৃৎ আর নেই বাংলাদেশে বাঁহাতি স্পিনের পথিকৃৎ আর নেই – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর প্রতিবেদক :: রামচাঁদ গোয়ালা। বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে বাঁহাতি স্পিনের এই অগ্রপথিক চলে গেছেন না ফেরার দেশে। আজ শুক্রবার ময়মনসিংহে নিজ বাসায় মারা গেছেন তিনি। বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন ৭৯ বছর বয়সী রামচাঁদ।

 

একসময়কার ক্রিকেটার ছিলেন রামচাঁদ গোয়ালা। ৫৩ বছর বয়স পর্যন্ত খেলেছেন ঢাকার ক্লাব ক্রিকেট। ঘরোয়া ক্রিকেটে পারফরম্যান্সও ছিল রঙিন। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাঁর পদচিহ্ন পড়েনি। তবুও তিনি বাংলাদেশের ক্রিকেটে উজ্জ্বল।

 

কেননা, তাঁর হাত ধরেই বাংলাদেশের ক্রিকেটে বাঁহাতি স্পিনের জোয়ার শুরু হয়। তাঁর দেখানো পথ ধরেই দেশে এতো এতো বাঁহাতি স্পিনারের আবির্ভাব।

 

এ বিষয়টি তৃপ্তি দিত রামচাঁদ গোয়ালাকেও। বছর কয়েক আগে এক সাক্ষাৎকারে তাই বলেছিলেন, ‘লাদেশে বাঁহাতি স্পিনের পথিকৃৎ আমিই। ষাটের দশকে বাঁহাতি স্পিন ব্যাপারটা নতুন ছিল এই দেশে। আমাকে দিয়েই শুরু হয় প্রচলন।’

 

১৯৪১ সালে জন্ম নেওয়া রামচাঁদ গোয়ালার শৈশব কাটে ময়মনসিংহে। ময়মনসিংহের বিখ্যাত সার্কিট হাউস মাঠে খেলতেন ক্রিকেট, ছিলেন পেসার। স্কুল ক্রিকেটে খেলার সময় স্পিন বেছে নেন। বয়স যখন ১৪, তখনই ময়মনসিংহ লিগে পন্ডিতপাড়া ক্লাবের হয়ে সুযোগ পান। আর ভিক্টোরিয়া ক্লাবের হয়ে ঢাকার লিগে অভিষেক ১৯৬২ সালে। মোহামেডানে নাম লেখান ১৯৭৫ সালে। আর ১৯৮১-৮২ মৌসুম থেকে ১৯৯২-৯৩ পর্যন্ত টানা খেলেছেন আবাহনীতে।

 

এর আগে ১৯৬৭ থেকে ১৯৭২ পর্যন্ত ব্যক্তিগত কারণে ছিলেন ক্রিকেট থেকে দূরে। ওই সময়ে তাঁর বাবাও মারা যান।

 

সুখবর পেলেন ভারতের সেই ‘নিষিদ্ধ’ পেসার

 

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট না খেললেও জাতীয় দলের হয়ে ম্যাচ খেলেছেন অনেক। ভারত সফরে গেছেন জাতীয় দলের হয়ে। শ্রীলঙ্কা বিপক্ষে খেলেছেন দেশের মাটিতেই।

 

রামচাঁদ গোয়ালা ক্রিকেট ছাড়েন ৫৩ বছর বয়সে। এরপর থেকে থাকতেন ময়মনসিংহে। বিয়েও করেননি তিনি।

 

স্পোর্টসট্যুর২৪ডটকম/আরআই-কে

শেয়ার করুন :