বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারলেন না ভারতীয় কোচ বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারলেন না ভারতীয় কোচ – SportsTour24

স্পোর্সটট্যুর প্রতিবেদক :: বাংলাদেশে প্রবেশের সময় আটকে দেওয়া হয়েছে ভারতীয় কোচ সুব্রত ভট্টাচার্যসহ পাঁচজনকে। ঢাকার ক্লাব আরামবাগ ক্রীড়া সংঘে কাজ করতে চার কোচিং স্টাফসহ বাংলাদেশে আসছিলেন সুব্রত। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ছাড়পত্র না থাকায় তাঁদেরকে যশোরের বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে প্রবেশ করতে দেয়নি ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ।

 

বাংলাদেশের ঘরোয়া ফুটবলের নতুন মৌসুম শুরু হবে ডিসেম্বরে, ফেডারেশন কাপ দিয়ে। এজন্য আগেভাগেই প্রস্তুতি শুরু করতে চায় আরামবাগ। সেজন্য তাঁরা ভারতীয় কোচ সুব্রত ভট্টাচার্যসহ পাঁচ কোচিং স্টাফকে নিয়োগ দিয়েছে।

 

কোচ সুব্রত আজ বৃহস্পতিবার সহকারী কোচ চন্দন রাঠৌর, গেম অ্যানালিস্ট শেখ আজিজুল, ফিজিও সঞ্জয় বোস ও ম্যাসিয়ার গনেশ দালুইকে নিয়ে বাংলাদেশে আসছিলেন। তাঁদের ভিসা ছিল, করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেটও ছিল। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে বাংলাদেশে প্রবেশে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিশেষ অনুমতি লাগে; সেটি তাঁদের ছিল না।

 

যেমনটি সংবাদমাধ্যমকে বলছিলেন আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের ফুটবল সম্পাদক গওহর জাহাঙ্গীর, ‘আজ আমাদের ভারতীয় কোচরা বেনাপোল স্থলবন্দর নিয়ে প্রবেশ করতে পারেন নি। করোনা পরিস্থিতির কারণে বেনাপোল ইমিগ্রেশন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ছাড়পত্র চেয়েছে। যেটা সম্পর্কে আমরা অবগত ছিলাম না।’

 

এ মাসের মধ্যেই মন্ত্রণালয়ের ছাড়পত্রের ব্যবস্থা করে কোচিং স্টাফদের নিয়ে আসার ব্যবস্থা করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

 

এক বছর আগে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের পর বর্তমানে আরামবাগ ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে। ঘানা জাতীয় দলে খেলা দুই ফুটবলার সাদিক এডামস ও ইব্রাহিম মোরোকে নিয়ে আসছে তাঁরা। এশিয়ান কোটায় নেওয়া হচ্ছে আফগানিস্তানের মিডফিল্ডার ফারদিন হাকিমিকেও। এঁদের মধ্যে সাদিক স্পেনের অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের বি টিমে খেলেছেন।

শেয়ার করুন :