‘বল টেম্পারিংয়ের’ পক্ষে ওয়াসিম আকরাম! ‘বল টেম্পারিংয়ের’ পক্ষে ওয়াসিম আকরাম! – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: করোনাকালীন ক্রিকেটের জন্য পাঁচটি নিয়ম বদলে ফেলেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। তন্মধ্যে সবচেয়ে আলোচিত বদলটি হলো যতদিন পর্যন্ত করোনা পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক না হবে ততদিন পর্যন্ত বলে লালা ব্যবহার করতে পারবেন না খেলোয়াড়রা। কেউ যদি অভ্যাসবশত বলে লালার ব্যবহার করে ফেলেন, তাহলে আম্পায়াররা এ বিষয়টির মধ্যস্থতা করবেন। তবে একই কাজ বারবার হতে থাকলে পুরো দলকে আনুষ্ঠানিক সতর্কতা দেয়া হবে। প্রতি ইনিংসে একটি দল সর্বোচ্চ দুইবার সতর্কতা পাবে। এর বেশি কেউ লালা ব্যবহার করলে সংশ্লিষ্ট ফিল্ডিং দলকে ৫ রান পেনাল্টি করা হবে, যা পাবে ব্যাটিং দল।

 

কাল মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে এ নিয়মের কথা জানায় আইসিসি। এ নিয়ে অনেকেই নানা মত প্রকাশ করছেন। যাদের মধ্যে আছেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার ওয়াসিম আকরাম। আজ বুধবার সংবাদ সংস্থা এএফপিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ওয়াসিম বলেছেন, ‘দৌড়ে আসা এবং কোনো সুইং ছাড়াই বোলিং করে যাওয়ার বিষয়টা বোলারদের পুরোপুরি রোবট বানিয়ে দেবে। এটা আমার জন্য খুবই অদ্ভুত একটা পরিস্থিতি। কারণ আমি বল উজ্জ্বল করতে এবং সুইং করানোর জন্য লালা ব্যবহার করেই বড় হয়েছি।’

 

এ পরিস্থিতিতে সীমিত পরিসরে বল টেম্পারিংয়ের পক্ষে বলছেন ওয়াসিম।

 

তবে করোনা সতর্কতার বিপক্ষে নন ওয়াসিম। তাই এখন রোবট হতে হলেও, বোলারদের অপেক্ষা করার পরামর্শই দিলেন এ পাকিস্তানি কিংবদন্তি। তিনি বলেন, ‘এ কঠিন সময়ে আমি সবধরনের সতর্কতা মানার পক্ষে। তাই বোলারদের এখন অপেক্ষা করতে বলটা পুরোনো হওয়ার, যাতে সেখান থেকে সুইং আদায় করতে নিতে পারে।’

 

মুখের লালার ব্যবহার নিষিদ্ধ হলেও, ঘামের ব্যাপারে কোন নির্দেশনা দেয়নি আইসিসি। অর্থাৎ চাইলে আগের মতোই ঘামের ব্যবহার করা যাবে বলের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে। তবে এটিকে কোন সমাধান মনে করেন না ওয়াসিম, ‘ঘাম তো আসলে একটা বোনাস। কখনও কখনও ঘাম ব্যবহারে বলের ওজন বেড়ে যায়।’

 

আরো পড়ুন:

টেস্ট ক্রিকেটে ‘করোনা বদলি’!

 

তাহলে লালার বিকল্প কী হতে পারে? সে পরামর্শও দিয়েছেন ওয়াসিম। তার মতে, মাঝের সময়টার জন্য বল উজ্জ্বল করতে ভেসলিন বা এ জাতীয় কিছু ব্যবহারের অনুমতি দেয়া উচিৎ।

 

ওয়াসিম বলেছেন, ‘আমি বিশ্বাস করি, তারা (কর্তৃপক্ষ) একটা যথাযথ সমাধান বের করে নেবে। বলের সুইং বাড়ানোর জন্য আর্টিফিসিয়াল কিছু যেমন ভেসলিন জাতীয় কিছু ব্যবহার করতে দেয়া উচিৎ। দেখা যাক ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে কী অবস্থা দাঁড়ায়। এরপর হয়তো কিছু বলা যাবে। এমন অভিজ্ঞতা তো আমাদের আগে কখনও হয়নি।’

 

 

ওয়াসিম চাচ্ছেন সীমিত পরিসরের বল টেম্পারিংয়ের অনুমতিও দেয়া হোক। তার মতে, ‘কখন থেকে বল টেম্পার করা যাবে? প্রথম ওভার থেকেই? নাকি ২০-২৫ ওভার যাওয়ার পরে? এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট সমাধানে পৌঁছানো উচিৎ। খেলাটা এরই মধ্যে ব্যাটসম্যানদের পক্ষে চলে গেছে।’

 

স্পোর্টসট্যুর২৪ডটকম/আরআই-কে

শেয়ার করুন :