ফের মেসির গোল, সঙ্গে ফাতি: বার্সার জয় ফের মেসির গোল, সঙ্গে ফাতি: বার্সার জয় – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: লেগানেসের হারানোর কিছু ছিল না। বরঞ্চ পাওয়ার ছিল অনেকই কিছুই। তাই নিজেদের উজাড় করে দিল তারা। কিন্তু শীর্ষ দল বার্সেলোনার বিপক্ষে জানপ্রাণ দিয়ে লড়েও হার এরাতে পারেনি তলানির দলটি।

 

লা লিগায় কাল রাতে কাম্প নউয়ে লেগানেসকে ০-২ গোলে হারিয়েছে বর্তমান শিরোপাধারী বার্সা। গোল করেছেন লিওনেল মেসি আর আনসু ফাতি। করোনার বিরতি শেষে শুরু হওয়া লিগে আগের ম্যাচেও গোল করেন আার্জেন্টাইন তারকা।

 

লিগে দুই দলের প্রথম দেখায় পিছিয়ে পড়ে পরে ঘুরে দাঁড়িয়ে ২-১ গোলের ব্যবধানে জয় পেয়েছিল বার্সা। কাল ফিরতি দেখায়ও পূর্ণ তিন পয়েন্টের সংগ্রাম করেছে স্পেনের অন্যতম জনপ্রিয় দলটি।

 

করোনার বিরতি শেষে এই প্রথম ঘরের মাঠে খেলতে নামে বার্সেলোনা। আগের ম্যাচ থেকে এ ম্যাচে পাঁচ পরিবর্তন নিয়ে একাদশ সাজায় তারা।

 

ম্যাচের প্রথম সুযোগটাই ছিল লেগানেসের। মেসার হেড থেকে বল পেয়ে শট নিয়েছিলেন আনহেল গেররেরো। গোললাইন থেকে বল ফিরিয়ে দিয়ে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা ফরাসি ডিফেন্ডার ক্লেমোঁ লংলে হন বার্সার ত্রাতা।

 

দুই মিনিট পর আবারও আক্রমণ লেগানেসের, আবারও শট গেররেরোর। কিন্তু দুরূহ কোণ থেকে তার নেওয়া শট দূরের পোস্টে লেগে ব্যর্থ হয়।

 

এরপরই যেন নিজেদের গোছাতে শুরু করে গেল দুই আসরের শিরোপাধারী মেসির বার্সা। অবশ্য পাঁচ ডিফেন্ডার নিয়ে খেলার লেগানেসের রক্ষণ ভেদ করতে পরিশ্রম করতে হয়েছে মেসিদের।

 

ম্যাচের ৩০তম মিনিটে ইভান রাকিতিচের চমৎকার ক্রস থেকে হেড নেন অঁতোয়ান গ্রিজমান; একটুর জন্য ছিল না লক্ষ্যে।

 

আরো পড়ুন:

উন্মোচিত হলো বিশ্বকাপের তৃতীয় স্টেডিয়াম

 

অবশেষে ৪২তম মিনিটে আসে কাঙ্ক্ষিত সেই গোল। জুনিয়র ফিরপোর বাড়ানো বল পেয়ে জটলা থেকে গড়ানো শটে কিপারকে ফাঁকি দিয়ে ঠিকানা খুঁজে নেন ফাতি; এগিয়ে যায় বার্সা।

 

৬৩তম মিনিটে নেলসন সেমেদোর কাছ থেকে বল পেয়ে জালেও পাঠিয়েছিলেন গ্রিজমান। কিন্তু ভিএআর প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে রেফারি সেটিকে গোল বলে স্বীকৃতি দেননি। কারণ, মেসির কাছ থেকে বল পাওয়ার সময় অফসাইডে ছিলেন খানিক আগে বদলি নামা সেমেদো।

 

এরপর ৬৯তম মিনিটে ডি-বক্সে মেসিকে ফাউল করা হয়। স্পট কিক থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মেসি। ক্লাব ও জাতীয় দলের হয়ে এটি মেসির ৬৯৯তম গোল। চলতি আসরে ২১তম। করিম বেনজেমার চেয়ে অনেকটা এগিয়ে থেকে গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে আছেন বার্সেলোনা অধিনায়ক। এছাড়া কাম্প নউয়ে মেসির গোল করা ও করানোর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৯৯-এ।

 

লেগানেস ৮২তম মিনিটে ব্যবধান কমানোর সুযোগ পেয়েছিল। তবে শট লক্ষ্য খুঁজে পায়নি গিদো কারিয়োর। ম্যাচের যোগ করা সময়ে লাল কার্ড দেখেন লেগানেসের কোচ।

 

এই জয়ে ২৯ ম্যাচে ২০ জয় ও চার ড্রয়ে ৬৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বার্সা। ২৮ ম্যাচে ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে রিয়াল মাদ্রিদ। আগামী বৃহস্পতিবার ঘরের মাঠে রিয়াল খেলবে ভালেন্সিয়ার বিপক্ষে।

 

স্পোর্টসট্যুর২৪ডটকম/আরআই-কে

শেয়ার করুন :