ফুটবলাররা যন্ত্র নয়: পেপ গুয়ার্দিওলা ফুটবলাররা যন্ত্র নয়: পেপ গুয়ার্দিওলা – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ কয়েক মাস বন্ধ ছিল সব ধরনের ফুটবল। এরপর দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে ফের যখন ফুটবল শুরু হলো, দেখা গেলে ঠাসা সূচি। একের পর এক আসর, একের পর এক ম্যাচ। এই ব্যস্ত সূচিতে অনেক খেলোয়াড়ই চোটগ্রস্ত হচ্ছেন।

 

এসব দেখেই প্রিমিয়ার লিগের দল ম্যানচেস্টার সিটির কোচ পেপ গুয়ার্দিওলা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলছেন, খেলোয়াড়দের কথা কেউ ভাবছে না। তাঁরা যে যন্ত্র নয়, সেদিকে কারো খেয়াল নেই। ফুটবল কর্তৃপক্ষ শুধুমাত্র নিজেদের স্বার্থের দিকেই চোখ রাখছে।

 

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে (ইপিএল) গেল সোমবার নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলে ম্যান সিটি। রোববার দ্বিতীয় ম্যাচে তাঁদের প্রতিপক্ষ লেস্টার সিটি। বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৯টায় শুরু হবে ম্যাচটি। দুই দিন বিরতি দিয়ে বুধবার লিগ কাপে বার্নলির বিপক্ষে খেলতে হবে ম্যান সিটিকে। এরপর শনিবার ফের প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচ আছে, প্রপিক্ষ লিডস ইউনাইটেড।

 

চোট ও অসুস্থতার কারণে এ ম্যাচে পেপ গুয়ার্দিওলা কয়েকজন খেলোয়াড়কে পাচ্ছেন না। দলের অন্যতম তারকা ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড গ্যাব্রিয়েল জেসুস নেই। বাইরে আছেন অলেকসান্দার জিনচেঙ্কো, সের্জিও আগুয়েরো, বের্নার্দো সিলভা ও জোয়াও কান্সেলো। এছাড়া করোনাক্রান্ত হয়ে আইসোলেশনে রয়েছেন ইলকাই গিনদোয়ান।

 

লেস্টার সিটির বিপক্ষে লড়াইয়ে নামার আগে খেলোয়াড়দের হয়ে মুখ খুলেন পেপ গুয়ার্দিওলা।

 

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘এটাই বাস্তবতা। কেবল ম্যান সিটিতেই নয়, এই চিত্র প্রতিটা ক্লাব ও দেশে। ফুটবলারদের কথা কেউ ভাবে না। প্রিমিয়ার লিগ, উয়েফা, ইএফএল-সবাই নিজেদের ব্যবসা ও অবস্থান সামলাতে ব্যস্ত।’

 

‘প্রাক মৌসুমে খেলোয়াড়দের হাতে সময় ছিল দুই সপ্তাহ। এখন আগামী ১১ মাস ধরে তাদের প্রতি তিন দিন পর পর ম্যাচ খেলতে হবে….বুঝতে পারছি, সবার জন্যই সময়টা অন্যরকম।’

 

ম্যানচেস্টার সিটির অবস্থার কথা বলতে গিয়ে গুয়ার্দিওলা বলেন, ‘সবাই লড়াই করছে….আমরা যা করছি তাতে বিশ্বাস রাখতে হবে, চেষ্টা করতে হবে এবং ভালো খেলতে হবে। আমাদের তিন জন খেলোয়াড় জাতীয় দল থেকে চোট নিয়ে ফিরেছে.…চার দিনে তাদের দুটি ম্যাচ খেলতে হয়েছে কোনো প্রস্তুতি ছাড়াই। তারা যন্ত্র নয়।’

শেয়ার করুন :