তদন্তের মুখে ভারত-শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ ফাইনাল তদন্তের মুখে ভারত-শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ ফাইনাল – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক অর্জুনা রানাতুঙ্গা বেশ আগেই বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিলেন। কয়েক দিন আগে নতুন করে বোমা ফাটিয়েছেন দেশটির সাবেক ক্রীড়ামন্ত্রী মাহিন্দানন্দ আলুথগামাগে। তিনি অভিযোগ তুলেছেন, ২০১১ সালের বিশ্বকাপ ফাইনাল ছিল ‘পাতানো’। ভারতের কাছে ফাইনাল‘বিক্রি করে দিয়েছিল’ শ্রীলঙ্কা!

 

এমন অভিযোগ ওঠার পর ঝড় বইছে লঙ্কান ক্রিকেটে। লঙ্কান দলের তৎকালীন অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা আর ব্যাটিংস্তম্ভ মাহেলা জয়াবর্ধনে সাবেক ক্রীড়ামন্ত্রীর অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন। তাঁরা প্রমাণ দাবি করেছেন।

 

তবে বর্তমান ক্রীড়ামন্ত্রী ডালাস আলহাপপেরুমা গোটা বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। এমনকি, প্রতি দুই সপ্তাহ পর পর তদন্তের গতিপ্রকৃতি জানানোর নির্দেশও দিয়েছেন তিনি।

 

ভারতের ওয়াংখেড়ে হওয়া সেই ফাইনালে জিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত। ৬ উইকেটে হেরেছিল লঙ্কানরা।

 

মেসিদের এ কোন দশা! শিরোপাস্বপ্নে হোঁচট

ওয়াংখেড়ের সেই ফাইনালে শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা রাজাপাকসেরর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ২০১০ থেকে ২০১৫ পর্যন্ত ক্রীড়ামন্ত্রী পদে থাকা আলুথগামাগেও। ফাইনালের দিনক্ষণ অবশ্য তাঁর মনে নেই।

 

আলুথগামাগে বলেছেন, ‘বছরটা ২০১১ না ২০১২ আমি ঠিক মনে করতে পারছি না। তবে ম্যাচটা আমরা জিততেই পারতাম। বিশ্বকাপটা ছিল ফিক্সড। আমি যা বলেছি, তা জোর দিয়েই বলছি এবং আমার করা মন্তব্য থেকে সরে আসছি না। দেশের কথা ভেবে আমি বিস্তারিত ভাবে কিছু বলতে চাই না।’

 

তিনি অবশ্য কোনও ক্রিকেটারদের দিকে সরাসরি আঙুল তোলেননি। তবে তাঁর দাবি, একটা অংশ ম্যাচ গড়াপেটার সঙ্গে জড়িত ছিল।

 

‘বাংলার ম্যারাডোনা’ ওয়ালি সাব্বির

শ্রীলঙ্কার ওই সময়র অধিনায়ক ছিলেন কুমার সাঙ্গাকারা প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন, ‘খুবই গুরুতর অভিযোগ করেছেন প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রী। যদি তাঁর কাছে যথেষ্ট প্রমাণ থাকে, তা হলে আইসিসি-র দুর্নীতি-দমন শাখার দ্বারস্থ হতে পারেন। সেই প্রমাণ খতিয়ে দেখার পরে তদন্ত শুরু হবে। তার পরে কারা ঠিক, কারা ভুল, প্রমাণ হয়ে যাবে।’

 

আর সেই ফাইনালে সেঞ্চুরি করা জয়াবর্ধনে টুইটারে প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন মাহেলা, ‘সামনে কি ভোট আসছে? এখন থেকেই তো সার্কাস শুরু হয়ে গিয়েছে দেখছি।’

 

স্পোর্টসট্যুর২৪ডটকম/আরআই-কে

শেয়ার করুন :