টানা অষ্টমবারের মতো বায়ার্নের শিরোপা উৎসব! টানা অষ্টমবারের মতো বায়ার্নের শিরোপা উৎসব! – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: উৎসবের মঞ্চ ছিল তৈরি। আনুষ্ঠানিকতাই ছিল শুধু বাকি। বায়ার্ন মিউনিখ সেটাও রাঙিয়ে দিল জয়ে। ভার্ডার ব্রেমেনকে তাদেরই মাঠেই হারিয়ে বুন্ডেসলিগায় টানা অষ্টমবারের মতো শিরোপা জয়ের উল্লাসে মেতেছে জার্মানির সফলতম দলটি।

 

কাল রাতে দারুণ ফর্মে থাকা রবের্ত লেভানদোভস্কির একমাত্র গোলেই ভার্ডার ব্রেমেনকে হারায় বায়ার্ন। এর মধ্য দিয়ে দুই ম্যাচ বাকি থাকতেই শিরোপা নিশ্চিত করেছে তারা।

 

বুন্ডেসলিগায় এটি ৩০তম শিরোপা বায়ার্নের।

 

আরো পড়ুন:

ফের মেসির গোল, সঙ্গে ফাতি: বার্সার জয়

 

বায়ার্ন এ ম্যাচে শিরোপা নিশ্চিত করতেই নেমেছিল। কিন্তু গোল পেতে তাদেরকে অপেক্ষা করতে হয় ৪৩তম মিনিট পর্যন্ত। জেরোমে বোয়াটেংয়ের রক্ষণের ওপর দিয়ে উঁচু করে বাড়ানো বল ডি-বক্সে বুক দিয়ে নামিয়ে ডান পায়ের কোনাকুনি শটে ব্রেমেনের জাল কাঁপান লেভানদোভস্কি। লিগে এটি তাঁর ৩১তম গোল। লেভানদোভস্কিই লিগে সর্বোচ্চ গোলদাতা। আর মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৪০ ম্যাচে এটি তাঁর ৪৬তম গোল!

 

৬০তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করতে পারতো বায়ার্ন। তবে টমাস মুলারের ক্রসে দারুণ পজিশনে থেকেও লক্ষ্যভ্রষ্ট হেড করেন লেভানদোভস্কি।

 

৮০তম মিনিটে প্রতিপক্ষের সার্ব ডিফেন্ডার মিলোস ভেলিকোভিচকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন বায়ার্ন মিডফিল্ডার আলফুঁস ডেভিস। ১০ জনের দল হয়ে শেষমুহূর্তে গোল প্রায় খেয়েই বসছিল বায়ার্ন। তবে ব্রেমেনের ওসাকার হেড ঝাঁপিয়ে পড়ে ঠেকান বায়ার্ন গোলরক্ষক মানুয়েল নয়ার।

 

করোনা পরিস্থিতির কারণে গ্যালারিতে ছিল না দর্শক। সেজন্যই বোধহয় বায়ার্নের শিরোপা উৎসব হলো একেবারে সাদামাটা।

 

মৌসুমের শুরুটা বায়ার্নের জন্য ছিল উদ্বেগের। প্রথম ১৪ রাউন্ডে ৪ হার, ৩ ড্র ছিল। ৭টি জয়ে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার সপ্তম স্থানে নেমে গিয়েছিল তারা! ব্যর্থতার জন্য চাকরি যায় কোচ নিকো কোভাচের।

 

এরপর গেল নভেম্বরের শুরুতে হান্স ফ্লিক অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেন। এতেই যেন ঘুরে দাঁড়ায় বায়ার্ন। সবশেষ বায়ার্ন হেরেছিল গত বছরের ৭ ডিসেম্বর; বরুসিয়া মনশেনগ্লাডবাখের মাঠে ২-১ গোলে। এরপর টানা ১৮ ম্যাচ অপরাজিত থেকে শিরোপা নিশ্চিত করেছে তারা। এর মধ্যে ড্র মাত্র একটি।

 

স্পোর্টসট্যুর২৪ডটকম/আরআই-কে

শেয়ার করুন :