গভীর সংকটে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট গভীর সংকটে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটে লেগেছে শনির দশা। ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকার (সিএসএ) সব সদস্য পদত্যাগ করায় টালমাটাল হয়ে পড়েছে পরিস্থিতি।

 

দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডে অস্থিরতা চলছে গেল বছর থেকে।

 

দক্ষিণ আফ্রিকার স্পোর্টস ফেডারেশন এবং অলিম্পিক কমিটির নির্দেশনা অনুসারে ক্রিকেট বোর্ডের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন একটি পরিচালন কমিটি ঠিক করতে বলা হয়েছিল। কিন্তু দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের সর্বোচ্চ সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী সংস্থা ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা মেম্বার্স কাউন্সিলের পরামর্শ থাকার পরও আগের কমিটি ভাঙতে রাজি হয়নি বোর্ড।

 

পরে অলিম্পিক কমিটি বিষয়টি ছেড়ে দেয় ক্রীড়ামন্ত্রী নাথি থেতওয়ার কাছে। তিনি ক্রিকেট বোর্ডকে ‘ন্যাশনাল স্পোর্টস এন্ড রিক্রিয়েশন অ্যাক্ট’ অমান্য করায় যথাযথ কারণ দর্শাতে মঙ্গলবার পর্যন্ত সময় বেঁধে দেন।

 

আইসিসির কাছ থেকে যাতে কোনো ধরনের নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে না হয়, সেজন্য দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রীড়ামন্ত্রী আইসিসিকেও নোটিশ পাঠিয়ে রেখেছিলেন। তিনি জানিয়ে রাখেন, সাম্প্রতিক সংকট উত্তরণে যথাযথ পদক্ষেণ গ্রহণ করা হবে।

 

সরকারের হস্তক্ষেপমুক্ত থেকে অলিম্পিক কমিটির সঙ্গে মিলে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড এখন পুনর্গঠনের মধ্য দিয়ে যাবে।

 

গেল শুক্রবার বোর্ডের সর্বোচ্চ সিদ্ধান্তগ্রহণকারী সংস্থা ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা মেম্বার্স কাউন্সিল পুরো বোর্ডকে পদত্যাগ করতে বলেছিল। এরপর রোববার বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট বেরেসফোর্ড উইলিয়ামসসহ ছয় সদস্য পদত্যাগ করেন।

 

তবে পদত্যাগী উইলিয়ামস, ডেনোভান মে, টেবোগো সিকো, অ্যাঞ্জেলো কারোলিসেন ও জন মোগোডি বোর্ডের স্বাধীন সদস্য ছিলেন না। তাঁরা নিজ নিজ তাদের প্রদেশের মাধ্যমে বোর্ডে নির্বাচিত হয়েছিলেন। তাঁদের সঙ্গে স্বাধীন বোর্ড সদস্য হিসেবে পদত্যাগ করেন ডেভেন ধর্মালিঙ্গম।

 

বোর্ডের আরও তিন স্বাধীন সদস্য ইউজেনিয়া কুলা-আমেয়াও, মারিয়ুস স্কোম্যান, ভুয়োকাজি মেমানি-সেদিলে এবং প্রাদেশিক সদস্য জোলা থামায়ে সোমবার পদত্যাগ করেছেন।

 

দেশটির ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট সব কাজ আপাতত মেম্বার্স কাউন্সিলের প্রধান রিহান রিচার্ডসই সারবেন। এছাড়া শিগগিরই দেখা যাবে অন্তবর্তীকালীন কমিটি। সেখানে কারা থাকবেন, তা নিশ্চিত নয়।

 

এদিকে, ২ নভেম্বর থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার ঘরোয়া মৌসুম শুরু হওয়ার কথা। চলমান সংকটের মধ্যে তা বাধাগ্রস্ত হয় কী-না, তা নিয়ে আছে সংশয়।

শেয়ার করুন :