ক্ষমা চেয়ে বার্সা সভাপতি বলছেন, ‘সিদ্ধান্ত নিতে হবে’ ক্ষমা চেয়ে বার্সা সভাপতি বলছেন, ‘সিদ্ধান্ত নিতে হবে’ – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: বড় বিপর্যয়ের পর আসে বড় পরিবর্তন। এমনটাই যেন ‘নিয়ম’। রিয়াল মাদ্রিদ যখন রাফায়েল বেনিতেজের অধীনে ছন্নছাড়া অবস্থায় পৌঁছে গেল, এলো পরিবর্তনের ডাক। দলের সাবেক খেলোয়াড় ফরাসি কিংবদন্তি জিনেদিন জিদানকে করা হলো কোচ। ফলাফলে টানা তিন চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়।

 

জুভেন্টাসের কথাই ধরুন। ম্যাচ ফিক্সিং, ফর্মহীনতা মিলিয়ে জুভেন্টাস যখন ধুঁকছিল, তখন আন্তোনিও কন্তের ছোঁয়ায় আমূল বদলে গেল দলটি।

 

বার্সেলোনার অবস্থা এখন বিপর্যয়কর। ঘরোয়া ফুটবলে শিরোপা নেই, চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বিধ্বস্ত। সাথে কোচ-খেলোয়াড় সম্পর্কে ভাটা।

 

বিশেষ করে কাল রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ৮-২ গোলে উড়ে যাওয়ার পর বার্সা শিবিরে এখন পরিবর্তনের সুর।

 

সেই পরিবর্তনটা কীভাবে হবে? কাকে বাদ দেওয়া হবে, রাখা হবে কাকে?
বার্সা সমর্থকদের কাছে যদি বাদ দেওয়ার কথা বলা হয়, তবে তাঁরা সর্বাগ্রে ক্লাব সভাপতি জোসেফ মারিয়া বার্তামেউয়ে বাদ দেওয়ার কথা বলবেন।

 

কেন?
প্রশ্নবিদ্ধ দলবদল, দলবদলে প্রয়োজনের চেয়ে অনেক বেশি অর্থ খরচ, পারফর্ম না করা খেলোয়াড়কে মাসের পর মাস ধরে বাড়তি বেতন দিয়ে পুষে রাখা, বিক্রি না করা, দলের সবচেয়ে বড় তারকা মেসিকে অসন্তুষ্ট করে সংবাদমাধ্যমে বারবার দোষারোপের খেলা খেলতে থাকা, নিজের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে মেসিসহ ক্লাবের সাবেক ও বর্তমান অনেকের নামে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কুৎসা রটানোর অভিযোগ….বার্তামেউয়ের যুগে বার্সায় নেতিবাচক ঘটনার যেন শেষ নেই।

 

বার্সেলোনার ‘গোড়ায় আঘাত লেগেছে’

 

কিন্তু বার্সা সভাপতির কথায় কিন্তু নিজের ব্যর্থতার কোনো কিছু নেই। তিনি বরং অন্যদের বলির পাঁঠা বানাতেই আগ্রহী!

 

বায়ার্নের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে সবার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি, অভিনন্দন জানিয়েছেন বায়ার্নকেও। আর বলছেন পরিবর্তনের কথা।

 

‘অনেক বড় একটা পরাজয় এটা। আমি বায়ার্নকে অভিনন্দন জানাতে চাই, যারা অসাধারণ খেলেছে। ওরা সেমিফাইনালে খেলার যোগ্যতা রাখে। আমরা আমাদের সেরাটা খেলতে পারিনি, এমনকি সেরার ধারের কাছ দিয়েও যেতে পারিনি। আমি সকল ভক্ত, সমর্থক, বোর্ড সদস্যের কাছে ক্ষমা চাইছি।’

 

‘(বায়ার্নের বিপক্ষে হার) এটা একটা বিপর্যয় ছিল, আর এই বিপর্যয় থেকে উত্তরণের জন্য আমাদের বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আমি এর মধ্যেই বেশ কিছু সিদ্ধান্তের কথা ভেবে রেখেছি।’

 

কী সেই সিদ্ধান্ত?
এখনই বলতে চাইছেন না বার্তমেউ, ‘আমি এখনই বলবো না সিদ্ধান্তগুলো কী বা কাকে নিয়ে। কারণ এর মধ্যেই কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে গেছে, সামনে আরও কিছু নেওয়া হবে। আমরা কোন অবস্থায় আছি, সেটা বোঝার জন্য নিজেদের দিকে তাকাতে হবে। সামনের সপ্তাহ থেকে পরিবর্তনের জন্য সিদ্ধান্তগুলো বাস্তবায়ন করা শুরু হবে।’

 

বার্তামেউয়ের ‘সিদ্ধান্তের’ মধ্যে যে বার্সা কোচ কিকে সেতিয়েনকে বিদায় করার বিষয়টি আছে, সেটি সম্ভবত না বললেও চলে।

শেয়ার করুন :