ওজিলের প্রতি ‘বাজে’ আচরণ, বিশ্বকাপজয়ী স্ট্রাইকার ক্ষুব্ধ ওজিলের প্রতি ‘বাজে’ আচরণ, বিশ্বকাপজয়ী স্ট্রাইকার ক্ষুব্ধ – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: একসময় আর্সেনালের মধ্যমাঠের প্রাণভোমরা ছিলেন মেসুত ওজিল। কিন্তু চলতি মৌসুমে ইংলিশ ক্লাবটিতে যেন ব্রাত্য হয়ে পড়েছেন এই সৃষ্টিশীল মিডফিল্ডার।

 

আর্সেনাল কোচ মিকেল আরতেতার দলে কোথায় স্থান হচ্ছে না ৩২ বছর বয়সী জার্মান মিডফিল্ডারের। আর এ নিয়েই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জার্মান স্ট্রাইকার লুকাস পোডোলস্কি।

 

২০১৪ বিশ্বকাপ জিতেছিলেন পোডোলস্কি-ওজিলরা। জাতীয় দলের সতীর্থের সাথে আর্সেনালের ‘বাজে’ আচরণের সময় চুপ থাকতে পারেন নি বর্তমানে তুরস্কের লিগে খেলা পোডোলস্কি।

 

রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে ২০১৩ সালে আর্সেনালে যোগ দেন ওজিল। চলতি বছরের ৭ মার্চ আর্সেনালের হয়ে সর্বশেষ মাঠে নেমেছিলেন মেসুত ওজিল। এরপর আর তাকে দলে দেখা যায়নি। অথছ ছয়-সাত বছর দাপটের সঙ্গে ‘গানারদের’ হয়ে খেলেছেন এই জার্মান।

 

বিশ্বকাপজয়ী মিডফিল্ডারকে বাতিলের খাতায় ফেলা নিয়ে লুকাস পোডোলস্কি বলছেন, ‘আমি পেছনের ঘটনা জানি না। কিন্তু ছয়-সাত মৌসুম ভালো খেলা কোনো ফুটবলারকে ছুড়ে ফেলে দেবেন, বিষয়টি একেবারেই ঠিক নয়।’

 

আর্সেনালের হয়ে ২৫৪ ম্যাচ খেলা ওজিল গোলও করেছেন ৪৪টি। সেই ওজিল এভাবে ব্রাত্য হয়ে পড়বেন, তা মানতে পারছেন না পোডোলস্কি।

 

‘কতটা দক্ষ সে, সেটি মাঠেই দেখা গেছে। সে কখনোই সতীর্থ খেলোয়াড় বা ক্লাবের সঙ্গে নেতিবাচক কিছু করেনি। দুঃখজনকভাবে সবাই তা ভুলে গেছে। সমাপ্তিটা এভাবে হওয়া উচিত নয়। গত কয়েক মাসে ক্লাব তার সঙ্গে ভালো কিছু করেনি।’

 

মেসুত ওজিল পাশে পাচ্ছেন আর্সেনালের সাবেক অধিনায়ক লরাঁ কসিয়েলনিও। এই ডিফেন্ডার ওজিলের সঙ্গে একসাথে খেলেছেন আর্সেনালে।

 

লরাঁ কসিয়েলনি বলছেন, ‘খেলোয়াড় হিসেবে সে আমার কাছে কিংবদন্তিতুল্য। সে এমন জায়গায় পাস দিতে পারে, যা অন্য কেউ দেখতে পায় না। খেলোয়াড় হিসেবে তাকে ফেনোমেনন বলাই যায়। সে অবিশ্বাস্য পাস দিয়ে খেলা ঘুরিয়ে দিতে পারে। আমরা দুজনই আর্সেন ওয়েঙ্গার যুগের অংশ। খেলোয়াড় হিসেবে ওয়েঙ্গার তাকে খুবই ভালোবাসতেন। কিন্তু উমাই এমেরি ও মিকেল আরতেতার সময়ই ঝামেলা হলো।’

শেয়ার করুন :