এএফসির লাইসেন্স চায় বাংলাদেশের ৯ ক্লাব এএফসির লাইসেন্স চায় বাংলাদেশের ৯ ক্লাব – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর প্রতিবেদক :: এএফসি কাপ খেলতে হলে এএফসির লাইসেন্সকৃত ক্লাব হতে হবে। অন্যথায় ঘরোয়া ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন বা রানার্সআপ হয়েও কোনো লাভ নেই। এরই প্রেক্ষিতে ২০২১ সালে এএফসি লাইসেন্সের জন্য আবেদন করেছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ৯টি ক্লাব। ১৩টি ক্লাবের বাকি ৪টি আবেদন করেনি।

 

বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ বলছেন, ৯টি ক্লাবের মধ্যে কারা এএফসির লাইসেন্স পায়, সেটিই এখন দেখার বিষয়।

 

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)-এর যে ৯টি ক্লাব এএফসির লাইসেন্সের জন্য আবেদন করেছে, সেগুলো হলো- বসুন্ধরা কিংস, আবাহনী লিমিটেড, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড, শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র, শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব, সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব, রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ড সোসাইটি, ব্রাদার্স ইউনিয়ন ও উত্তর বারিধারা ক্লাব।

 

অন্যদিকে বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাব, চট্টগ্রাম আবাহনী, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র ও আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ এএফসির লাইসেন্সের জন্য আবেদন করে নি।

 

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ এ বছর সম্পূর্ণ হয় নি। করোনাভাইরাসের কারণে লিগ প্রথমে স্থগিত, পরে বাতিল করা হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে এএফসি কাপ ২০২১ সালের আসরে বাংলাদেশের দ্বিতীয় ক্লাব কোনটি হবে, সেটি নিয়ে খানিকটা অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে।

 

বসুন্ধরা কিংস এ বছর ফেডারেশন কাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। ফলে তাঁরা পাচ্ছে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের (এএফসি) আয়োজনে অংশগ্রহণের সুযোগ। দ্বিতীয় দলটি কারা হবে, সেটিই এখন প্রশ্ন।

 

এশিয়ার ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা এএফসি ইতিমধ্যেই ২০২১ সালের এএফসি কাপ নিয়ে সদস্য দেশগুলোর ভাবনা, পরিকল্পনা জানতে চেয়েছে। বিশেষ করে লিগ বাতিল হওয়ায় কোন কোন ক্লাব এবার এএফসি কাপে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবে, সে বিষয়টি জানতে চাওয়া হয়েছে।

 

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) এখন বসুন্ধরা কিংসের সাথে অন্য আরেকটি ক্লাবের নাম দেবে এএফসি কাপের জন্য। দেশে এ মৌসুমে একমাত্র ফেডারেশন কাপ সম্পন্ন হয়েছে। যেখানে চ্যাম্পিয়ন হয় বসুন্ধরা কিংস, রানার্সআপ রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি।

 

তবে কী দ্বিতীয় দল হিসেবে রহমতগঞ্জকেই বেছে নেবে বাফুফে?

 

কিন্তু রহমতগঞ্জেরও এএফসি ক্লাব লাইসেন্স নেই। ফলে এবার তাঁরাও লাইসেন্স পাওয়ার আবেদন করেছে। এ লাইসেন্স না থাকলে এএফসি কাপে অংশ নেওয়ার সুযোগ নেই।

 

বাংলাদেশ থেকে এর আগে বসুন্ধরা কিংসা, ঢাকা আবাহনী এএফসি কাপে অংশ নিয়েছে। তাঁদের এএফসি ক্লাব লাইসেন্স আছে। এবার অন্য দলগুলোও এএফসি লাইসেন্সের জন্য আবেদন করলো।

 

বাফুফে ক্লাবগুলোকে চিঠি দিয়েছিল, কেউ আগ্রহী থাকলে যাতে লাইসেন্সের জন্য আবেদন করে। এরই প্রেক্ষিতে ৯টি ক্লাব আবেদন করেছে।

 

এএফসির লাইসেন্স পেতে কিছু শর্ত পূরণ করতে হয়। এসব শর্তের মধ্যে আছে ক্লাবে ‘এ’ লাইসেন্সধারী হেড কোচ, যুব দল থাকা, যুব দলের কোচ এবং তাদের খেলায় অংশগ্রহণ, দলের চিকিৎসক বা ফিজিওকে দায়িত্ব দেয়ার প্রমাণপত্র, খেলোয়াড়দের সাথে চুক্তিপত্র, ফুটবলারদের মেডিকেল সুবিধা, নিজস্ব হোম ভেন্যু ও অনুশীলন মাঠ, যুব ফুটবল উন্নয়নে কার্যকর পরিকল্পনা, ক্লাব সেক্রেটারিয়েট, ক্লাবে সাধারণ সম্পাদক, পূর্ণকালীন বা সাময়িক ফিনান্সিয়াল অফিসার নিয়োগ, মিডিয়া অফিসার, ক্লাবের আইনগত ভিত্তি, নিরাপত্তা কর্মকর্তা থাকা, বার্ষিক বাজেট থাকা এবং বাজেটের অডিটকৃত কপি থাকা।

 

এ সবকিছু সপক্ষে প্রমাণপত্র দিতে হয় এএফসি লাইসেন্সের জন্য।

 

এখন যারা লাইসেন্স পাবে, তাদের মধ্য থেকে আরেকটি ক্লাবকে এএফসি কাপের জন্য বেছে নেবে বাফুফে।

 

বাংলাদেশ থেকে যাতে দুটি ক্লাব এএফসি কাপে অংশ নিতে পারে, সে ব্যাপারে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে বলে জানিয়েছেন বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ।

 

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালে বাংলাদেশের ৬টি ক্লাব এএফসি লাইসেন্সের জন্য আবেদন করেছিল। তন্মধ্যে বসুন্ধরা কিংস, ঢাকা আবাহনী ও সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব লাইসেন্স পায়। বাকি ক্লাবগুলো শর্ত পূরণ করতে না পারায় লাইসেন্স পায় নি।

শেয়ার করুন :