ইরানের ডিফেন্ডারকে দলে টানলো ঢাকার বসুন্ধরা ইরানের ডিফেন্ডারকে দলে টানলো ঢাকার বসুন্ধরা – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর প্রতিবেদক :: এএফসি কাপ বাতিল হয়ে গেছে। বাংলাদেশের ঘরোয়া ফুটবলের নতুন মৌসুম শুরু হবে আগামী ডিসেম্বরে, ফেডারেশন কাপ দিয়ে। কিন্তু এই কয়েক মাস বসে থাকতে রাজি নয় বসুন্ধরা কিংস। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ঢাকার ফুটবলে শক্ত অবস্থান তৈরি করে নেওয়া দলটি আগামী এএফসি কাপ এবং ঘরোয়া মৌসুমের জন্য এখন থেকেই প্রস্তুতি নিচ্ছে।

 

এরই অংশ হিসেবে ইরানের ডিফেন্ডার খালেদ শাফিকে দলে টেনেছে বসন্ধুরা কিংস।

 

বসুন্ধরা কিংসে মিডিয়া ম্যানেজার আহমেদ শায়েক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

৩৩ বছর বয়সী খালেদ শাফি ইরানের প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব সেপাহান স্পোর্টস ক্লাবের হয়ে সর্বশেষ মাঠে নামেন। ২০১৮-১৯ মৌসুমে দলটির হয়ে ১৩ ম্যাচ খেলে রক্ষণ সামলানোর পাশাপাশি একটি গোলও করেন এই ডিফেন্ডার।

 

ইরানের প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব নাফ তেহরান, ট্রাক্টর স্পোর্টস ক্লাব, জোব আহান ইস্পাহানের হয়েও খেলেছেন খালেদ শাফি। কোরিয়ার বিখ্যাত ক্লাব এফসি সিউলের হয়ে ২০১৭ সালে খেলার অভিজ্ঞতাও আছে তাঁর।

বসুন্ধরা কিংসে মিডিয়া ম্যানেজার আহমেদ শায়েক জানিয়েছেন, খালেদের সঙ্গে বসুন্ধরার চুক্তি হয়েছে এক বছরের। তিনি আগামী মাসে ঢাকায় পৌঁছাবেন।

 

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে চলতি বছরের এএফসি কাপ বাতিল হয়ে গেছে। বাতিল হওয়ার আগে একটিমাত্র ম্যাচ খেলেছিল বসুন্ধরা কিংস। সে ম্যাচে মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস ক্লাবের বিপক্ষে ৫-১ গোলে উড়িয়ে দেয় ঢাকার চ্যাম্পিয়নরা।

 

বড় জয় পেলেও ওই ম্যাচে বসুন্ধরার রক্ষণে দুর্বলতা ফুটে ওঠে। ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে আর্জেন্টাইন হোল্ডিং মিডফিল্ডার নিকোলাস দেলমন্তেকে সেন্টারব্যাক হিসেবে খেলাতে বাধ্য হয় দলটি। তখন থেকেই মানসম্মত একজন সেন্টারব্যাকের খুঁজে ছিল বসুন্ধরা। এবার তাঁরা আনছে ইরানের খালেদকে।

 

আগামী ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ফেডারেশন কাপ দিয়ে ঘরোয়া ফুটবলের নতুন মৌসুম শুরু হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। মার্চে হওয়ার সম্ভাবনা আছে এএফসি কাপ। সর্বশেষ ফেডারেশন কাপের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে বসুন্ধরা কিংস সরাসরি খেলবে এএফসি কাপে।

 

সামনের এই ব্যস্ত সূচির জন্য বসুন্ধরা এখন পুরোদমে প্রস্তুত হচ্ছে। দলটিকে আগেই যোগ দিয়েছিলেন আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের সাবেক স্ট্রাইকার হার্নান বার্কোস। সম্প্রতি দলে নেওয়া হয় ব্রাজিলের রবসন রবিনহো ও জোনাথন ফার্নান্দেজকে। এ তিনজনই বর্তমানে ঢাকায় আছেন।

 

গুঞ্জন আছে, বার্কোস ডিসেম্বরের পর বাংলাদেশ ছাড়তে পারেন। বসুন্ধরার সঙ্গে তাঁর এক বছরের চুক্তি শেষ হবে ডিসেম্বরে। তবে বসুন্ধরা তাঁকে ধরে রাখতে চেষ্টা চালাচ্ছে।

শেয়ার করুন :