ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ ‘লিটমাস টেস্ট’ ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ ‘লিটমাস টেস্ট’ – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর ডেস্ক :: প্রাণঘাতী এক মহামারি স্বাভাবিক সব কিছুকে করে দিয়েছে অস্বাভাবিক। সাজানো-গোছানো সব হয়ে গেছে এলোমেলো। করোনায় ধাক্কায় প্রায় চার মাস ধরে বন্ধ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটও।

 

অবশেষে ‘ক্রিকেটহীন’ দিনগুলো ফুরোচ্ছে। আগামী ৮ জুলাই মাঠে গড়াচ্ছে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজ। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথমটি হবে সাউদাম্পটনে। বাকি দুটি ম্যানচেস্টারে।

 

করোনাকালে মাঠে ক্রিকেট ফেরার এই সিরিজকে ‘লিটমাস টেস্ট’ মনে করছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক শন পোলক। এক সাক্ষাৎকারে এই সিরিজ নিয়ে নিজের ভাবনা প্রকাশ করেছেন এই আফ্রিকান গ্রেট।

 

করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা কয়েকটি নিয়মে পরিবর্তন এনেছে। ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ দিয়ে যার প্রয়োগ ঘটতে যাচ্ছে। যার মধ্যে আছে বলে মুখের লালার ব্যবহার না করা, করোনা বদলি প্রভৃতি। এছাড়া করোনাকালে খেলা হবে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে, থাকবে জীবাণুমুক্ত পরিবেশ।

 

এছাড়া এই সিরিজের মধ্য দিয়ে আইসিসি পরিস্থিতি বুঝতে চাইছে। করোনাকালে বা করোনা-পরবর্তী সময়ে ক্রিকেট চালিয়ে যেতে আর কী কী প্রয়োজন পড়ে, তা এই সিরিজের মধ্য দিয়ে অনুধাবন করতে চায় তাঁরা।

 

এই সিরিজ নিয়ে আগ্রহের কারণ আছে আরেকটি। সেটি হচ্ছে, দীর্ঘদিন পর মাঠে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরছে। ক্রিকেটপ্রেমীদের আগ্রহের পারদ তাই উঁচুতে; যদিও ম্যাচ দেখতে হবে টিভির পর্দায়।

 

শন পোলকও ক্রিকেটপ্রেমীদের আগ্রহের বিষয়টি অনুধাবন করছেন, ‘আমার মনে হয়, ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ সম্ভবত দীর্ঘদিনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি মানুষের দেখা টেস্ট সিরিজ হতে যাচ্ছে । কারণ, মানুষ খেলা দেখার জন্য তৃষ্ণার্ত হয়ে আছে। আবারও টেস্ট ক্রিকেট দেখতে তারা আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষায়।’

 

সামনের দিনে ক্রিকেট পরিস্থিতি কিভাবে এগোবে, তা এই সিরিজের মধ্য দিয়ে ফুটে ওঠবে বলে মনে করছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এই অধিনায়ক, ‘এই সিরিজ কিছুটা লিটমাস টেস্টের মতো। সবকিছু কিভাবে এগোয়, পরিস্থিতি কতোটা সামাল দেওয়া যায়, কোনো সমস্যা হবে কিনা, সমস্যা যাতে না হয়–সব দেখার সুযোগ এই সিরিজ।’

 

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল চলতি মাসের শুরুর দিকে ইংল্যান্ডে গিয়ে ১৪ দিনের আইসোলেশনে ছিল। এরপর ক’দিন আগে তাঁরা অনুশীলন শুরু করেছে।

 

ওয়েস্ট ইন্ডিজের পর পাকিস্তান দলের ইংল্যান্ড সফরে যাওয়ার কথা। যদিও দেশটির ৯ ক্রিকেটার করোনায় আক্রান্ত।

শেয়ার করুন :