আশরাফুলসহ ৯ জন বাদ, বাংলাদেশ পেল দুঃসংবাদ আশরাফুলসহ ৯ জন বাদ, বাংলাদেশ পেল দুঃসংবাদ – SportsTour24

স্পোর্টসট্যুর প্রতিবেদক :: বাংলাদেশ হিসেবের মধ্যে রেখেছিল ৩৬ খেলোয়াড়কে। কিন্তু একইসাথে দলের সর্বশেষ ম্যাচে অধিনায়কত্ব করা আশরাফুল ইসলামসহ নয় জন খেলোয়াড় বয়সের কারণে বাদ পড়ছেন। আগামী বছরের জানুয়ারিতে ঢাকায় অনুষ্ঠিতব্য অনূর্ধ্ব-২১ এশিয়া কাপ হকিতে খেলতে পারবেন না তাঁরা। বাংলাদেশের হকিতে এটি এসেছে বড় দুঃসংবাদ হিসেবে।

 

চলতি বছরের ৪ থেকে ১২ জুন অনূর্ধ্ব-২১ এশিয়া কাপ হকি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মহামারি করোনার কারণে ওই সময় তা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে যায়। সম্প্রতি এশিয়ান হকি ফেডারেশন নতুন করে সূচি নির্ধারণ করেছে আগামী বছরের ২১ থেকে ৩০ জানুয়ারি। এদিকে স্থগিত হওয়া আরেক টুর্নামেন্ট এশিয়ান হকি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হবে আগামী বছরের ১১ থেকে ১৯ মার্চ।

 

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীতে উদযাপিত ‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে এ দুই টুর্নামেন্ট আয়োজন করছে বাংলাদেশ। কিন্তু আয়োজনের আগেই এলো দুঃসংবাদ।

 

অনূর্ধ্ব-২১ এশিয়া কাপ হকিতে যাদের বয়স ২১ বছরের কম, তারাই খেলতে পারেন। এ টুর্নামেন্ট যদি চলতি বছরের জুনের মধ্যে যদি হয়ে যেতো, তাহলে বাংলাদেশের ওই ৯ খেলোয়াড়ের বয়স ২১ বছরের কমই থাকতো। কিন্তু জানুয়ারিতে টুর্নামেন্ট চলে যাওয়ায় তাদের বয়স ২১ বছরের বেশি হয়ে যাচ্ছে। ফলে তারা খেলতে পারবেন না।

 

এই ৯ খেলোয়াড় হলেন- বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ডিফেন্ডার আশরাফুল ইসলাম, ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ মাহাবুব হোসেন, ঢাকা জেলার মিডফিল্ডার নাঈম উদ্দিন, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর মিডফিল্ডার ফজলে রাব্বী, ঢাকা জেলার ডিফেন্ডার খালেদ মাহমুদ রাকিন, কিশোরগঞ্জের মিডফিল্ডার আল নাহিয়ান শুভ, বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর মিডফিল্ডার নাজমুল হাসান মৃদুল, মিডফিল্ডার রাজু আহমেদ তপু ও ফরোয়ার্ড আশরাফুল আলম।

 

বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সহসভাপতি সাজেদ আকিল আহমেদ আদেল বলছিলেন, ‘২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বর অবধি যাদের বয়স ২১ বছরের কম থাকবে, তারাই ২০২১ সালের মার্চে টুর্নামেন্ট হলে খেলতে পারবেন। এক্ষেত্রে আমাদের ৯ জন খেলোয়াড়ের বয়স বেশি হয়ে যাচ্ছে। এটা আসলেই দুঃসংবাদ। কিন্তু নিয়ম তো নিয়মই, কিছু করার নেই।’

 

বাংলাদেশ যদি অনূর্ধ্ব-২১ এশিয়া কাপ হকির সেমিফাইনালে ওঠে, তবে পরের যুব বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ পাবে। কিন্তু এখন অভিজ্ঞ পাঁচ খেলোয়াড়সহ নয় জন বয়সের কারণে বাদ পড়ায় পথটা কঠিন হয়ে গেল বাংলাদেশের জন্য।

 

যেমনটি বলছিলেন কোচ মাহবুবুর রশীদ, ‘বয়সের কারণে যারা বাদ পড়ছেন, তাদের মধ্যে পাঁচজন তো একাদশের খেলোয়াড়। আমাদের বিশ্বকাপ কোয়ালিফাই করার দারুণ সুযোগ ছিল। কিন্তু আশরাফুল, মাহবুব, নাঈম, রাব্বী, রাকিনদের না পেলে দল দুর্বল হয়ে যাবে।’

শেয়ার করুন :